লালপুরে আ. লীগের দু’পক্ষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া: বাড়িতে হামলা

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত নভেম্বর ১, ২০১৯
লালপুরে আ. লীগের দু’পক্ষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া: বাড়িতে হামলা

আসাদ আবির

জেলা প্রতিনিধি নাটোর:

নাটোরের লালপুরের নওপাড়া বাজারে নেতাদের নিজেদের অনুকুলে বসানোর চেষ্টা করতে গিয়ে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের ধাক্কাধাক্কি, আওয়মী লীগ অফিস ও বাড়ি ঘরে হামলার ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নওপাড়া বাজার এলাকায় বুধবার (৩০ আক্টোবর) সন্ধ্যার পরে লালপুর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ও বিলমাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিন্টু, নাটোর জেলা তাঁতীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম বাঘা, সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হাসান রিপনসহ নেতৃবৃন্দ আসেন। এসময় দুড়দুড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নায়েব উদ্দিন মালিথার ছেলে ও লালপুর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান পলাশ, ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য আলতাফ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলীসহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ আগত নেতাদের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ অফিসে বসার অনুরোধ জানান।

অপরদিকে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা সাংসদ সমর্থক তোফা ও তার লোকজন আগত নেতাদের তাদের অফিসে বসার জন্য বলেন। আগত নেতাদের কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি ও জোরাজুরি শুরু হয়। এ সময় তোফা গ্রুফের নুসারুলসহ কয়েকজন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ অফিসে ঢুকে চেয়ার ও আসবাবপত্র ভাংচুর করে। ধাক্কাধাক্কি শুরু হওয়ার সময় দু’পক্ষ ইট-পাটকেল ছুড়লে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ ও সমর্থকরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। রাত সোয়া আটটার দিকে পুনরায় দু’পক্ষ সংগঠিত হয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এ সময় আবু তালেব নামে আওয়ামী লীগ কর্মী আহত হয়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দু’পক্ষকই ইট ছুড়াছড়ি করতে মেতে উঠলে মানুষের মধ্যে আতংক সৃষ্টি হয়। এ সময় কার্তিক কুমারের ছেলে বিকাশ কুমারের বাড়ির বেড়া ভাংচুর ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। পরে তোফাজ্জল হোসেন তোফার নেতৃত্বে মিছিল বের হয়ে মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও পানসিপাড়া গ্রামের লুৎফর রহমানের স্ত্রী সাবরিনা খাতুনের বাড়ি, একই গ্রামের আমির আলীর ছেলে খোদাবক্স ও নওপাড়া গ্রামের মহাম্মদ আলীর ছেলে বাবুলের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘরের বেড়া ভাংচুর ও বাড়ির মধ্যে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করা হয়।
এ ব্যাপারে তোফাজ্জল হোসেন তোফা জানান, কোন ঘটনা ঘটেনি।

যুবলীগ নেতা মাহমুদুর রহমান পলাশ বলেন, তোফার জামাত-বিএনপির লোকজন নিয়ে হামলা করেছে।

খবর পেয়ে লালপুর থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) মনোয়ারুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

Sharing is caring!