আবরার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিয়ে জাতি সন্দিহান

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত অক্টোবর ১০, ২০১৯
আবরার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিয়ে জাতি সন্দিহান

নুরুল হক
নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি:

আজ ১০ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার নোয়াখালি জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গনে ইশা ছাত্র আন্দোলন নোয়াখালী জেলা দক্ষিণ এর উদ্যোগে এ আয়োজিত বুয়েটের মেধাবী ও দেশপ্রেমিক শিক্ষার্থী আবরার হত্যাকারী খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে বক্তারা বলেন আবরারের খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিয়ে জাতি সন্দিহান।
জেলা সভাপতি দিদার হোসাইন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন এর জেলা জয়েন্ট সেক্রেটারী মাওলানা ফিরোজ আলম।প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন,আবরার হলো ভারতীয় আগ্রাসন বিরোধী প্রথম শহীদ।তার আত্মত্যাগের মাধ্যমে ভারতের আগ্রাসন বিরোধী জনমত তৈরী হবে।বিক্ষোভ মিছিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক জেলা দক্ষিণ সভাপতি কাওসার আহমদ, জেলা উত্তর এর সাবেক সভাপতি তাজুল ইসলাম, নোয়াখালী সরকারী কলেজ ছাত্র আন্দোলন এর সভাপতি হাবিবুর রহমান সহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। কলেজ সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন জাতি আজ আবরারের খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিয়ে সন্দিহান,যেভাবে খুনিদের বাচাতে নানা ষড়যন্ত্র হচ্ছে তা দেখে জাতি নির্বাক।এর আগেও ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন এর কর্মীদের হাতে খুন হয়,ঢাবির আবুবকর,জাবির জুবায়ের, জবির আরিফ,চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ এর নাদিম,ও সাধারণ দর্জি বিশ্বজিৎ, এদের খুনিদের সর্বোচ্চ কোন শাস্তি এ জমিনে হয়নি,বরং খুনিরা বেকুসুর খালাস পেয়ে দম্ভভরে রাস্তায় চলাফেরা করে।তিনি হুশিয়ারী করে বলেন আবরারে বেলায় এমনটা ঘটলে ছাত্র সমাজ তার যথোপযুক্ত জবাব দিবে।কলেজ সভাপতি আরে বলেন ভারতীয় সাম্রাজ্যবাদী আগ্রাসন এর বিরোধিতা করায় আবরার শহীদ হয়েছিল। প্রয়োজনে আরো আবরার শহীদ হবে তবু ও স্বাধীন স্বার্বভৌম রাষ্ট্রে ভারতীয় আগ্রাসন সহ্য করা হবেনা।ভারতীয় সাম্রাজ্যবাদী শক্তির সকল অপচেষ্টা রুখে দেওয়া হবে।তিনি বলেন একমাত্র স্বৈরশাসকরাই ছাত্ররাজনীতি ভয় পায়। বুয়েটের ঘটনা দ্বারা ছাত্ররাজনীতি বন্ধের মাধ্যমে স্বৈরশাসক রা তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে চায়। তিনি বলেন ক্যাম্পাসে সন্ত্রাসী ছাত্রসংগঠনের রাজনীতি নিষিদ্ধ করুন।অন্য ছাত্ীরাজনীতি নিষিদ্ধ করার পায়তারা করলে ছাত্র সমাজ তা রুখে দিবে। সমাবেশ পরবর্তী বিক্ষোভ মিছিল পুলিশি বাঁধায় পন্ড হয়ে যায়।।

Sharing is caring!