বয়োবৃদ্ধদের কান ধরিয়ে ছবি তোলায় সমালোচনার মুখে এসিল্যান্ড

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মার্চ ২৮, ২০২০
বয়োবৃদ্ধদের কান ধরিয়ে ছবি তোলায় সমালোচনার মুখে এসিল্যান্ড

আওয়ার বাংলাদেশ:

করোনা প্রতিরোধে মাস্ক না পরে বাইরে বের হওয়ায় তিন বৃদ্ধকে কান ধরে দাঁড় করিয়ে রেখে শাস্তি দিয়ে নিজেই সেই দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড দিয়েছেন যশোর মনিরামপুরের এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসান।

শুক্রবার (২৭ মার্চ) বিকেলে মনিরামপুরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারি কমিশনার (ভূমি) সাইয়েমা হাসান এই কাজ করেন।

রাতে সেসব ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ম‌্যজিস্ট্রেটের বিরুদ্ধে সামলোচনার ঝড় ওঠে।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় লোকসমাগম না করতে সাইয়েমা হাসানের নেতৃত্বে শুক্রবার বিকেল থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালত উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন।

বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে চিনাটোলা বাজারে অভিযানের সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের সামনে পড়েন দুই বৃদ্ধ। এদের একজন বাইসাইকেল চালিয়ে যাচ্ছিলেন। অপরজন রাস্তার পাশে বসে কাঁচা তরকারি বিক্রি করছিলেন। তাদের মুখে মাস্ক ছিল না।

সেসময় পুলিশ ওই দুই বৃদ্ধকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করে। শাস্তি হিসেবে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদেরকে কান ধরিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখেন। এছাড়াও পরবর্তীতে ভ্রাম্যমাণ আদালত অপর এক বৃদ্ধ ভ্যান চলককে একইভাবে কান ধরে দাঁড় করিয়ে রাখেন।

কান ধরে দাঁড়িয়ে থাকার সেসব ছবি নিজেই মোবাইলে ধারণ করেন ম‌্যাজিস্ট্রেট সাইয়েমা হাসান। রাতে সেসব ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় সমালোচনার শিকার হন সাইয়েমা হাসান।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইয়েমা হাসান শাস্তি দেওয়ার কথা স্বীকার করেন।

এদিকে কান ধরিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখার বিষয়টি দুঃখজনক উল্লেখ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহসান উল্লাহ শরিফী জানান, বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই বাবার বয়সী বৃদ্ধদের কান ধরিয়ে দাঁড় করিয়ে রেখে ছবি তোলার ঘটনাকে ঘৃন্য ও ন্যাক্কারজনক বলে দাবী এই এসিল্যান্ডের শাস্তির দাবী করা হয়েছে।

দিন মজুরদের খাবারের ব্যবস্থা না করে তাদেরকে বেদড়ক প্রহার ও কান ধরানো সত্যি দুঃখজনক ও অমানবিক।

Sharing is caring!