কোম্পানীগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বিয়ে ভঙ্গ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মার্চ ২১, ২০২০
কোম্পানীগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বিয়ে ভঙ্গ

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ-

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সারা দেশের মতো সামাজিক, ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সরকারের এই আদেশ অমান্য করে আজ উপজেলার শিলের ভাঙ্গা নদীর পাড়ে ব্যাপক লোক সমাগম ঘটিয়ে বিয়ের আয়োজন করায় কনের পিতাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে বিয়ের আয়োজন বন্ধ করে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

একই দিনে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করার দায়ে টুকের বাজারের নাজমুল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা, পাড়ুয়া বাজারে জসিম স্টোরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় ভ্রাম্যমান আদালতের উপস্থিতিতে পাড়ুয়া বাজারের দোকানগুলো থেকে ৩৫ টাকা কেজি দরে ক্রেতাদের কাছে পেঁয়াজ বিক্রি করা হয়।

এদিকে টুকের গাঁওয়ে দুবাই ফেরত প্রবাসীর পরিবার কোয়ারান্টিন এর নিয়ম না মানায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আজ শুক্রবার (২০ মার্চ) কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন আচার্যের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন আচার্য জানান, ‘করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সবাইকে সচেতন না হলে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে না। করোনাভাইরাসকে পুঁজি করে কোন অসাধু ব্যবসায়ী যদি নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি করে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে’। তিনি আরো বলেন, ‘জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে’। এ ব্যাপারে সকলের সহযোগিতাও কামনা করেন তিনি।

Sharing is caring!