আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন বাংলাদেশ ২০২০ সম্পন্ন

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জানুয়ারি ১৪, ২০২০
আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন বাংলাদেশ ২০২০ সম্পন্ন

আহমদ শাকির মুহাম্মদ ইসহাক:

স্টাফ রিপোর্টার:

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম পূর্বসাহানে হাজারো শ্রোতার উপস্থিতিতে গত ২ জানুয়ারি বাংলাদেশে ২০২০ আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ধারাবাহিক ঢাকা, মুন্সীগঞ্জ, মৌলভী বাজার, সিলেট, ফেনীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়, আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থা বাংলাদেশের উদ্যোগে ও ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলনে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ধর্মপ্রাণ মানুষের উপস্থিতিতে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম প্রাঙ্গন মুখরিত হয়ে উঠে।

বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) দুপুর ৩ টা থেকে ক্বিরাত সম্মেলন শুরু হয়ে রাত ১১টা পর্যন্ত চলে। মাওলানা ক্বারী আবুল হোসাইনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ, এতে সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনায় ছিলেন আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থা বাংলাদেশের মহাসচিব শায়েখ সাদ সাইফুল্লাহ মাদানী, অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সংস্থার সাংগঠনিক সম্পাদক ক্বারী মাহমুদুল হাসান, সম্মেলনে বরেণ্য উলামায়ে কেরাম, বুদ্ধিজীবী, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক ও সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত হন।

এবারের সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন বিশ্বের অনেক প্রথিতযশা ক্বারী সাহেবগণ। তেলাওয়াত ও সুরের মূর্ছনায় কোরআন প্রেমিদের মুগ্ধ করেছেন মিশরের কৃতি সন্তান বর্তমান বিশ্বের সর্বোচ্চ শাঁসের অধিকারী শায়েখ মনসুর জুমা মনসুর, ইরানের কৃতি সন্তান বর্তমান বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ক্বারী শায়েখ সাঈদ তুসী, মিশর জাতীয় সংসদের প্রধান ক্বারী শায়েখ মুহাম্মদ মুহাম্মদ আল মুরিজি, মালয়েশিয়ার কৃতি সন্তান বিশ্ব কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জনকারী শায়েখ কামারুজ্জামান দাউদ, বাংলাদেশের কৃতি সন্তান বিশ্বনন্দিত ক্বারী শায়েখ সাদ সাইফুল্লাহ মাদানী, সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন মক্কা শরীফ থেকে আগত মসজিদে রেফাঈ সৌদী আরবের সম্মানিত খতিব ও আল জাজিরা টেলিভিশনের সিনিয়র আলোচক বিশ্বখ্যাত দাঈ শায়েখ মুতাসিম বিল্লাহ রা’ফাত,
উল্লেখ তানজানিয়ার প্রখ্যাত ক্বারী শায়েখ মোবারক শাবানী রুমিজা এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করার জন্য তার টিকেট ভিসা সবকিছু কনফর্ম থাকা সত্বেও তিনি অংশগ্রহণ করতে পারেননি, কারণ ২ জানুয়ারি রবের ডাকে সাড়া তিনি দিয়ে পরপারে চলে যান, আল্লাহ তাকে জান্নাতে আলা মাকাম নছিব করুন আমীন।
এছাড়াও দেশের অনেক খ্যাতিমান ক্বারী উপস্থিত থেকে কোরআন তিলাওয়াত করেন বিশেষ করে বাংলাদেশ বেতারে হিফজুল কোরআন তিলাওয়াতের প্রতিষ্ঠাতা হাফেজ মাওলানা ক্বারী আবুল হোসাইন, হাজারো হাফেজদের উস্তাদ হাফেজ আব্দুল হক, প্রবীণ ক্বারী মাওলানা আবু রায়হান, ক্বারী লুৎফুর রহমান, ক্বারী মাহমুদুল হাসান, ক্বারী সাইফুর রহমান, ক্বারী শহিদুল ইসলাম, ক্বারী সাইদুল ইসলাম আসাদ, ক্বারী আবু সালেহ মোহাম্মদ মুসা, ক্বারী নূর মোহাম্মদ, ক্বারী মোঃ জাকারিয়া, ক্বারী রুহুল আমিন, ক্বারী আবদুল মালেক, হাফেজ তারেক জামিল প্রমুখ।

ধর্মীয় ও দৃষ্টিনন্দন পরিবেশে মসজিদের সাহানে, মাঠে ও আশপাশে মুসল্লিদের জন্য এবং মসজিদের মহিলাদের নামাজের স্থানে মা-বোনদের জন্য এলইডির মাধ্যমে তেলাওয়াত শোনার বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হয়।

আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থার উদ্যোগে ও ব্যবস্থাপনায় ১ জানুয়ারি আগত ক্বারী সাহেবগণ ২ জানুয়ারি থেকে ধারাবাহিক ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন জেলায় আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। গতকাল ১৩ জানুয়ারি বিশ্বখ্যাত ক্বারী সাহেবগণ ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যার যার দেশে ফিরে যান,

সংস্থার মহাসচিব শায়েখ সাদ সাইফুল্লাহ মাদানী বলেন,
গতবছর ফেব্রুয়ারিতে শুরু হওয়া এ সংগঠন ইতিমধ্যে দেশের মানুষের হৃদয়ে যায়গা করে নিয়েছে, কোরআন প্রেমিদের আশা পূরণে ১১ মাসে আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থা বেশ কিছু কর্মসূচি হতে নিতে সক্ষম হয়েছে, অলরেডি বেশ কিছু কর্মসূচি বাস্তবায়নও হয়েছে, নতুন বৃহত্তম কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থা এ ফেব্রুয়ারিতে নতুন নেতৃত্বের কথাও ভাবছেন, এ জানুয়ারি থেকেই শুরু হবে আরো বেশ কয়েকটি প্রজেক্ট আল্লাহর রহমত ও সকলের সহযোগিতা থাকলে সমস্ত কর্মসূচি বাস্তবায়নে আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থা বাংলাদেশ সক্ষম হবে ইনশাআল্লাহ।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ বলেছেন, বাংলাদেশে কোরআন বিরোধী কোনো ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না। ঘরে ঘরে কুরআনের আলো ছড়িয়ে দিতে হবে। কোরআনমুখী জিন্দেগী কায়েম করতে পারলে দুনিয়া আখেরাতে নাজাত পাওয়া যাবে। আগামী বছর থেকে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পূর্ণ সহযোগিতায় ঢাকাতে আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলনের আয়োজন করা হবে ইনশাআল্লাহ। ২ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার রাতে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পূর্ব সাহানে আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থা আয়োজিত ক্বিরাত সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ এসব কথা বলেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ বলেন, মহান আল্লাহপাকের সন্তুষ্টি লাভের জন্য দ্বীনের কাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। তিনি বলেন, কোরআনের পক্ষে যা যা করার ইনশাআল্লাহ আমরা তাই করবো। আগামী বছর হিফজ প্রতিযোগিতার উদ্যোগ নেয়া হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

‘কোরআন মাজিদকে আঁকড়ে ধরলে পৃথিবীর কোনো অপশক্তি মুসলমানদেরকে পরাজিত করতে পারবে না। আসুন আমরা কোরআনকে ভালোবাসি আমাদের সন্তানদের কোরআনের শিক্ষায় শিক্ষিত করি। এতে আমাদের মঙ্গল ও আমাদের দেশের জন্য মঙ্গল হবে ইনশাআল্লাহ।’

আগামীতেও এ সম্মেলন অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

Sharing is caring!