ভোলার বুরহানউদ্দীনে পুলিশের গুলিতে তৌহিদী জনতাকে হত্যার প্রতিবাদে দক্ষিণ আফ্রিকায় মানববন্ধন

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত অক্টোবর ২৫, ২০১৯
ভোলার বুরহানউদ্দীনে পুলিশের গুলিতে তৌহিদী জনতাকে হত্যার প্রতিবাদে দক্ষিণ আফ্রিকায় মানববন্ধন

সৈয়দ বেলালী :

সম্প্রতি ভোলার বোরহানউদ্দীনে পুলিশের গুলিতে নিরীহ-নিরস্ত্র অসহায় তৌহিদী জনতাকে নির্বিচারে পুলিশ গুলি করে হত্যা করা ও শত শত তৌহিদী জনতাকে গুলিবিদ্ধ করে আহত করা এবং মহানবী সাঃ কে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে দক্ষিণ আফ্রিকায়  মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গতকাল (২৪ অক্টোবর) বৃহস্পতিবার জোহানেসবার্গ শহরের স্মল স্ট্রীটে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দক্ষিণ আফ্রিকা শাখার উদ্যোগে মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি মুফতি কামাল উদ্দিন।
জয়েন্ট সেক্রেটারী জয়নাল আবেদীন ফারুকের পরিচালনায় মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দক্ষিণ আফ্রিকার উপদেষ্টা মাওলানা জুনাইদ আল হাবীব। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আমরা বাংলাদেশী সংগঠনের প্রধান সমন্বয়ক এসএইচ মুহাম্মদ মুশাররফ, শাপলা টিভি সিইও নোমান মাহমুদ, বাংলাদেশ কমিউনিটি অব জোহানেসবার্গের উপদেষ্টা মোহাম্মদ মানিক, মোহাম্মদ নুরুল্ল্যাহ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দক্ষিণ আফ্রিকার সেক্রেটারী মাওলানা মাজহারুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ ওমর ফারুক, মিজানুর রহমান প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ভোলার বোরহান উদ্দীনের ঘটনায় বিশ্বের তৌহিদী জনতা বাকরুদ্ধ হয়ছে। এমন কি জঘন্য ঘটনা ঘটেছিল যার কারনে পুলিশ নির্বিচারে গুলি করতে বাধ্য হলো? বক্তারা বলেন আমরা মনে করি পুলিশের এহেন ন্যাক্কারজনক কাজে নবী সা. এর বিরুদ্ধে কটুক্তিকারীরা আরো উৎসাহিত হবে।

আমরা চাই বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটির মাধ্যমে তদন্ত করে দোষীদেরকে অবশ্যই আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করতে হবে।
এবং শহীদদের পরিবার কে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে, আহতের চিকিৎসার ব্যয়বার বহন করতে হবে।
বক্তারা বলেন নিরীহ মুসলমানদের উপর হামলা নিঃসন্দেহে একটি ঘৃন্য ষড়যন্ত্র,এই ষডযন্ত্র মোকাবিলায় মোসলমানদের কে সজাগ থাকতে হবে, বক্তারা বলেন দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রবাসীদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে যে কোন ষড়যন্তের মোকাবিলায় এক হয়ে কাজ করার আহবান জানান।

পরে দোয়া মুনাজাতের মাধ্যমে মানববন্ধন সমাপ্তি করা হয়।

Sharing is caring!