মিডিয়ার এমন বৈষম্য কেন ?

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জানুয়ারি ৫, ২০২০
মিডিয়ার এমন বৈষম্য কেন ?

সৈয়দ হাবীবুল্লাহ বেলালী

মালয়েশিয়ার মাহসা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত আলোচিত ভিপি ছাত্র নেতা মো.বশির ইবনে জাফর গতকাল ০৩-০১-০২০ ইং দেশে এসেছেন ।

দুঃখজনক হলেও সত্য, সে একটি ইসলামী সংগঠনের কর্মী, গায়ে সুন্নাতী জামা ও মুখে দাড়ি হওয়ার কারনে দেশে এত মিডিয়া থাকা সত্বেও কারও নজরে পড়েনি। এমন বৈষম্য কেন?

আমার প্রশ্ন মিডিয়া ওয়ালাদের কাছে- মো.বশির ইবনে জাফর কি লাল সবুজের প্রতিনিধিত্ব করছে না ? সে যদি বাংলাদেশেরই প্রতিনিধিত্ব করে থাকে, তা হলে তাকে মুল্যায়ন করছেন না কেন ? গায়ে জুব্বা, মাথায় টুপি, মুখে দাড়ি এই জন্যেই কি ? এবং সে দেশে ইসলামী একটি সংগঠনের দায়িত্বশীল ছিল এটাই কি তার অপরাধ ! এটা যদি আপনাদের মূল্যায়নের মাপ কাঠি হয়, তা হলে বলবো, আপনারাই হলেন মেধা বিকশিত হওয়ার পথে বড় অন্তরায়।

আজকে যদি সে ছাত্রলীগ, ছাত্র দল বা বামপন্হি ছাত্র সংগঠনের কর্মী হতো তা হলে তাকে নিয়ে মিডিয়া কর্মীদের আয়োজনের শেষ থাকতো না।

যেই ছাত্র এমন গৌরবময় বিজয় অর্জিত করে লাল সবুজের পতাকাকে বিশ্বের দরবারে সম্মানিত করেছে, তাকে দেশের মাটিতে এমন অবমূল্যায়ন,তা আসলেই মেনে নেয়া যায় না।
আসলে কি আমাদের দেশে মেধার মূল্যায়ন নেই? আছে শুধু রাজনৈতিক পরিচয়ের মুল্য? তারই জলন্ত প্রমাণ মালয়েশিয়া মাহসা বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য ছাত্র সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত ভিপি বশির ইবনে জাফর।

উল্লেখ্য, গত ৫ ই ডিসেম্বর ০১৯ ইং, মালয়েশিয়ার বৃহৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাহসা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে ভিপি নির্বাচিত বাংলাদেশি নাগরিক বশির ইবনে জাফর।

তবে ইসলামী ঘরনার দুই একটি অনলাইজ নিউজ পোর্টাল নিউজ করেছে তাদের কে ধন্যবাদ জানাই।

তার থেকেও দুঃখজনক হলো যেখানে ইসলামী সংগঠনগুলো সংবর্ধনা দিয়ে গ্রহন করবে তারাও সেটা করেনি।

শুধুমাত্র শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন ঢাকা পুর্ব শাখার পক্ষ থেকে নেতৃবৃন্দ ফুল দিয়ে বরণ করেন এবং সংবর্ধনা প্রদান করেন।

আমি ব্যক্তিগত ভাবে প্রিয় অনুজ বাশার ইবনে জাফর কে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।

এবং দোয়া করি আল্লাহ পাক তোমার আগামী পথচলাকে কামিয়াবিতে ভরপুর করে দিক, আমিন।

সৈয়দ মো. হাবিব উল্লাহ বেলালী
সাবেক সভাপতি,
ইশা ছাত্র আন্দোলন, হাটহাজারী সাংগঠনিক জেলা ও ফেনী জেলা।
তাং :- ০৪-০১-০২০ ইং
সৌদিআরব।

Sharing is caring!