August 15, 2020, 7:07 am

হত্যা চেষ্টার অভিযোগে বিএনপি-র সভাপতিকে গ্রেফতার!

  • নাজমুস সাকিব
  • গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মুহাম্মদ আক্তারুল আলম মাস্টারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত রাতে উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের টেংরা বাজারের পরিষদ ভবনের পেছন থেকে তাকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টার একটি মামলা রয়েছে বলে শ্রীপুর থানার ওসি খন্দকার ইমাম হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতার আক্তারুল আলম মাস্টার তেলিহাটি ইউনিয়নের বেকাশহরা গ্রামের নুরুল ইসলাম ওরফে মুহির ছেলে। তিনি স্থানীয় একটি মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক।

মামলার বাদী তানিয়া আক্তার জানান, ৯ মে রাত সাড়ে দশটার দিকে আক্তারুল আলম মাস্টার আরও কয়েকজনকে সাথে নিয়ে টেংরা বাজারে আমার বাবাকে হত্যার উদ্দেশ্যে দা,লোহার রড ও চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। বর্তমানে তিনি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন। এ ঘটনায় তার এক পা ভেঙে যাওয়ায় এখনও তিনি বিছানায় কাতরাচ্ছেন। এর আগেও, আমার ভাইকে অন্যায় ভাবে মারপিট করায় আরেকটি মামলার ১ নং আসামী আক্তারুল আলম।

তবে, এ ঘটনার সাথে আক্তারুল আলম মাস্টার জড়িত নয় জানিয়ে তার বোন মাসুদা খাতুন জানান, শুধুমাত্র পারিবারিক শত্রুতার জেরে ও মানহানি করার উদ্দেশ্যেই এ মামলায় আক্তারুল আলম মাস্টারকে জড়ানো হয়েছে। এ ঘটনার ন্যায়বিচার দাবী করেন তিনি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এস আই) প্রদীপ কুমার জানান, গত ১১ মে আমান উল্লাহ বাচ্ছু (অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য) নামে এক প্রতিবেশীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে ভুক্তভোগীর মেয়ে তানিয়া আক্তার বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিলেন আক্তারুল আলম। গত রাতে ডিবি পুলিশের একটি দল তাকে আটক করে থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেন।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি খন্দকার ইমাম হোসেন জানান, আটক হওয়া আক্তারুল আলম প্রতিবেশীকে হত্যা চেষ্টা মামলা-২১,৫/২০ এর এজাহার ভুক্ত ১নং আসামি। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সোমবার দুপুরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর

ফেসবুক পেইজ