August 14, 2020, 8:29 am

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে দুদকের অভিযান

  • আওয়ার বাংলাদেশ ডেস্ক

স্বাস্থ্যখাতে মাস্ক কেলেঙ্কারি, পিপিই (ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম) সরবরাহে দুর্নীতি ও করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্তের পরীক্ষায় ভুল রিপোর্ট এবং রিজেন্ট হাসপাতালের অনিয়ম-প্রতারণাসহ স্বাস্থ্য খাতের দুর্নীতি উদঘাটনে কাজ শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এরই অংশ হিসেবে রিজেন্ট হাসপাতাল সংশ্লিষ্ট বেশকিছু নথি আনতে স্বাস্থ্য অধিদফতর গিয়েছিল দুদকের একটি টিম। তবে প্রস্তুত না থাকায় কাঙ্ক্ষিত নথিগুলো পায়নি তারা।

রোববার (১৯ জুলাই) দুপুরে দুদকের উপপরিচালক আবু বক্কর সিদ্দিকের নেতৃত্বে চার সদস্যের ওই টিম স্বাস্থ্য অধিদফতরে যায়।

দুদক সূত্র বলছে, এর আগে রিজেন্ট হাসপাতারের সঙ্গে স্বাস্থ্য বিভাগের চুক্তি ও লেনদেন নিয়ে অধিদফতরের কাছে তথ্য চেয়েছিল দুদক। সেই তথ্য আনতেই দুদকের টিম স্বাস্থ্য অধিদফতরে গিয়েছিল। তবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক দুদক টিমকে বলেছেন, প্রয়োজনীয় তথ্য-উপাত্ত এখনো প্রস্তুত না হওয়ায় নথিগুলো এখই দিতে পারছেন তারা।

আগামীকাল (সোমবার, ২০ জুলাই) অধিদফতর নিজ দায়িত্বে দুদকে সব তথ্য-উপাত্ত পৌঁছে দেবে— দুদক টিমকে এমন আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে দুদক সূত্র।

এর আগে, গত ১৩ জুলাই রিজেন্ট হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় (দুর্নীতি দমন কমিশন) দুদক। একই দিন জেকেজি হেলথ কেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরীর বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় দুদক। অনুসন্ধানের অংশ হিসেবেই দুদক রিজেন্ট হাসপাতালের অনিয়ম-প্রতারণাসহ স্বাস্থ্য খাতের বিভিন্ন দুর্নীতির বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের কাছে তথ্য চেয়েছিল।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর

ফেসবুক পেইজ