ফেনীতে চরমোনাই’র নমুনায় তিনদিন ব্যাপী মাহফিল ৫, ৬ ও ৭ ডিসেম্বর

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৯
ফেনীতে চরমোনাই’র নমুনায় তিনদিন ব্যাপী মাহফিল ৫, ৬ ও ৭ ডিসেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদন:

আশরাফুল মাখলুকাত তথা সৃষ্টির সেরা জাতি মানুষকে আল্লাহ তা’আলা সৃষ্টি করেছেন তাঁর ইবাদতের জন্য। আর এর মাঝেই রয়েছে মানব-জাতির প্রকৃত শান্তি ও মুক্তি। ইসলামী শরীয়ত, মহানবী (সা.)-এর আদর্শ ও পীর-মাশায়েখের তরীকা অনুসারে মানবজীবন গঠনের লক্ষ্যে বরিশালের চরমোনাইয়ের নমুনায় ফেনী মহিপাল সরকারী কলেজ ময়দানে তিনদিন ব্যাপী ইসলামী সম্মেলন ও হালকায়ে জিকির আগামী ৫, ৬ ও ৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক মাওলানা নুরুল করীম আওয়ার বাংলাদেশ২৪.কমকে জানান মাহফিল উপলক্ষ্যে পুরো ফেনী জেলাতে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। পুরুষ শ্রোতাদের জন্য প্রায় ৩০ হাজার বর্গফুটের সুবিশাল প্যান্ডেলের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এবং কঠোর নিরাপত্তা ও পর্দাসহকারে মা-বোনদের জন্য ওয়াজ শোনার ব্যবস্থা করার প্রস্তাবণাও আছে বলে জানিয়েছেন।

তিনদিনের এই ইসলামী সম্মেলন ও হালকায়ে জিকিরে দেশ-বিদেশের বিখ্যাত আলেম ও ইসলামি স্কলাররা উপস্থিত থেকে দ্বীন ও আখেরাত সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ বয়ান ও নসিহত পেশ করবেন। সংগঠনের পক্ষ এসবই আওয়ার বাংলাদেশ২৪.কমকে জানিয়েছেন।

চরমোনাই সিলসিলার তাসাউফভিত্তিক আধ্যাত্মিক ও ধর্মীয় সংগঠন বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির উদ্যোগে চরমোনাই বার্ষিক মাহফিলের নমুনায় ফেনীর মহিপাল সরকারী কলেজ ময়দানে তিনদিন ব্যাপী মাহফিলটি আয়োজন করেছেন।

মাহফিলে চরমোনাই সিলসিলার মহান মুরশেদ, পীরে কামেল, আমীরুল মুজাহিদীন হযরত মাওলানা মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) সহ দেশবরেণ্য ওলামায়ে কেরাম, শীর্ষস্থানীয় পীর-মাশায়েখ, ইসলামী চিন্তাবিদ-বুদ্ধিজীবীবর্গ শরীয়ত ও মা’রিফতের বিভিন্ন বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ বয়ান ও নসীহত পেশ করবেন। চরমোনাইয়ের বার্ষিক মাহফিলের ঐতিহ্য অনুসারে ৫ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) বিকাল ৪টায় পীর সাহেব চরমোনাই হুজুরের উদ্বোধনী মধ্য দিয়ে মাহফিলের কার্যক্রম শুরু হবে এবং ৮ জানুয়ারী (রবিবার) ফজরের নামাযের পর বয়ান ও আখেরি মুনাজাতের মাধ্যমে সমাপ্ত হবে। মাহফিলে প্রথম দিন শরীয়ত, দ্বিতীয় দিন মা’রেফাত ও তৃতীয় দিন ইসলামী আর্দশের নানা দিক নিয়ে ওলামায়ে কেরাম বয়ান পেশ করবেন । উদ্বোধীন বয়ানসহ প্রতিদিন সকাল-সন্ধ্যা দু’বেলা এবং আখেরি মুনাজাতপূর্ব বয়ানসহ পীর সাহেব হুজুর চরমোনাই মোট ৫টি, নায়েবে আমীরুল মুজাহিদীন ২টি বয়ান পেশ করবেন।

মাহফিলের বিভিন্ন অধিবেশনে আরও বয়ান করবেন- দারুল উলুম আল হুসাইনিয়ার শায়খুল হাদীস, আল্লামা নুরুল ইসলাম আদীব, সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম পীর সাহেব চরমোনাই, চরমোনাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল খায়ের মুহাম্মদ ইসহাক, পীর সাহেব রহঃ খলীফা অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুস আহমদ, মাওলানা আব্দুল আউয়াল পীর সাহেব খুলনা ও মাওলানা হাবীবুর রহমান মিসবাহ সহ দেশবরেণ্য ওলামায়ে কেরাম ও শীর্ষস্থানীয় পীর-মাশায়েখ তাশরীফ আনবেন।

উল্লেখ্য, চরমোনাইয়ের বার্ষিক মাহফিলের নমুনায় রাতে অল্প সময় ঘুমানো ছাড়া তিন দিনের পুরো সময় দেশের বরেণ্য আলেম, পীর-মশায়েখ ও ইসলামি স্কলাররা ধর্মীয় বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ বয়ান এবং সরাসরি পীর সাহেব চরমোনাইয়ের তত্ত্বাবধানে তালিম-তারবিয়ত ও জিকির-আজকার অনুষ্ঠিত হবে।

Sharing is caring!