বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনতে হবে -ইশা ছাত্র আন্দোলন

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯
বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনতে হবে -ইশা ছাত্র আন্দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিনের পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর আজ শনিবার দুপুর ১২টায় স্থানীয় ভাড়াটে সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে হামলা চালিয়ে অন্তত বিশ জনকে আহত করা হয়েছে বলে গণমাধ্যম সূত্রে আমরা জানতে পেরেছি। স্থানীয় সচেতন মহল এবং শিক্ষার্থীদের অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সর্বোচ্চ মহলের নির্দেশেই এই হামলা চালানো হয়েছে। এধরণের ন্যাক্কারজনক ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন।

আজ বিকাল ৩টায় এক যৌথ বিবৃতিতে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ ফজলুল করীম মারুফ এবং সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মাদ মুস্তাকিম বিল্লাহ বলেন, ক্লাসরুম অপরিষ্কার থাকা নিয়ে ফেসবুকে লেখার কারণে ট্রিপল-ই বিভাগের পাঁচ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারাদেশ, ভিসির বাসভবনে বিউটি পার্লার নির্মাণ, ভর্তি বাণিজ্যের মাধ্যমে অযোগ্য ছাত্রদের ভর্তি, ক্যাম্পাসে নিজের অনুগত পেটোয়া বাহিনী তৈরি করাসহ যে দশটি অভিযোগে সাধারণ শিক্ষার্থীরা ভিসির পদত্যাগ দাবী করছে তা বিবেচনা ও তদন্তের দাবি রাখে। এবং তদন্তপরবর্তী অভিযোগ সত্য প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত ব্যক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির মত গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনের যোগ্যতা রাখেনা বলে নেতৃদ্বয় মন্তব্য করেন।

নেতৃদ্বয় বলেন, আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার ও যৌক্তিক দাবী আদায়ে সবসময় তাদের সাথে ছিলাম এবং আছি। তারই ধারাবাহিকতায় বশেমুরবিপ্রবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে ইতিমধ্যে ইশা ছাত্র আন্দোলন বশেমুরবিপ্রবি শাখার সাধারণ সম্পাদক আন্তর্জাতিক বিভাগের ষষ্ঠ সেমিষ্টারের ছাত্র মুহাম্মাদ রাজন সিকদার এবং শাখা কার্য্যনির্বাহী সদস্য বিএমবি বিভাগের চতুর্থ সেমিষ্টারের ছাত্র মুহাম্মাদ সাদ্দাম গুরুতর আহত হয়েছে।

নেতৃদ্বয় উক্ত ঘটনায় জড়িতদের সনাক্ত করে দ্রুত বিচারের আওতায় আনার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে জোর দাবী জানান। এবং হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, অন্যথায় চলমান আন্দোলন তীব্র থেকে তীব্রতর হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Sharing is caring!