হক কথা বলতে গিয়ে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝুলতেও দ্বিধাবোধ করবো না : আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী

আওয়ার বাংলাদেশ ডেস্ক ২৪
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১
হক কথা বলতে গিয়ে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝুলতেও দ্বিধাবোধ করবো না : আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী
হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর,শায়খুল হাদীস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, মুসলিম উম্মাহর ঈমান আকিদা রক্ষায় কুরআন-সুন্নাহর বাণীর প্রচার-প্রসার এবং দীপ্ত কণ্ঠে হক্ব কথা বলা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। হক্ব কথা বলায় যদি কোন নাস্তিক মুরতাদের গায়ে আগুন জ্বলে তাতে আমাদের কিছু যায় আসেনা। হক ও সত্যের পয়গাম সর্বত্র পৌছিয়ে দেওয়া ওলামায়ে কেরামের উপর রাসূল (সা.) কর্তৃক অর্পিত জিম্মাদারী। এ জিম্মাদারী পালনে আমরা সামান্যও পিছপা হবো না। ইসলাম বিরোধী বহুমুখী ষড়যন্ত্রের মোকাবেলায় প্রকৃত হক্ব কথা বলতে গিয়ে প্রয়োজনে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝুলতেও দ্বিধাবোধ করবো না।
হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ চট্টগ্রাম বায়েজিদ থানা শাখা আয়োজিত শানে রেসালত সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
তিনি আরো বলেন,বিশ্বমানবতার মূক্তির দূত হযরত মুহাম্মদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাদের কলিজার টুকরা নবী। আমরা আমাদের প্রাণের চাইতেও নবীজি (সা.) কে বেশি মুহাব্বত করি। বিশ্বের যে কোন প্রান্তে নবিজি (সা.) এর অবমাননা করা হলে আমরা এর প্রতিবাদে জ্বলে উঠবো। শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করবো। বিশ্বনবীর অবমাননা পৃথিবীর দেড়শো কোটি মুসলমান কখনো মেনে নেবে না।
হেফাজত নেতা মাওলানা জসিম উদ্দিনের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় হামলার মূলহোতাদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে তিনি বলেন,মাওলানা জসিম উদ্দিন সাহেবকে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত করা হয়েছে। সিসিটিভির ফুটেজ দেখে শনাক্ত হওয়া সন্ত্রাসী মাসুমকে গ্রেফতারের পরও জামাই আদরে জেলখানায় রাখা হয়েছে। পুলিশ তার বিষয়ে কোন রিপোর্ট দিচ্ছে না। সন্তাসী মাছুমকে আদালতে তুলা হলেও পুলিশ তার রিমান্ড আবেদন করেনি এবং ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত অন্যদের গ্রেফতার করতে পুলিশের কোন তৎপরতাও লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। অনতিবিলম্বে মাওলানা জসিমউদদীনের উপর হামলাকারী সন্ত্রাসী মাছুমকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে এবং এই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত অন্যদের খোঁজে বের করতে হবে। এভাবে ওলামায়ে কেরামের উপর হামলা হলে দেশের শান্তিশৃঙ্খলা চরমভাবে বিঘ্নিত হবে।
হেফাজতের চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি মাওলানা হাফেজ তাজুল ইসলাম,সাধারণ সম্পাদক মাওলানা লোকমান হাকিম,হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মাওলানা মুহাম্মদ ইয়াহইয়া আলমপুরী ও মাওলানা ফুরকানুল্লাহ খলীলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শানে রেসালত সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন হেফাজতের সহকারী মহাসচিব মাওলানা হাসান জামিল ঢাকা,মাওলানা খোরশেদ আলম কাসেমী, গাজী সানাউল্লাহ রাহমানী,মুফতী হুমায়ুন খালভী, মাওলানা মোস্তফা নুরী, প্রমুখ।
এতে উপস্থিত ছিলেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর ও নাজিরহাট মাদরাসার মহাপরিচালক মুফতী হাবীবুর রহমান কাসেমী,যুগ্ম মহাসচিব ও হাটহাজারী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা নাছির উদ্দিন মুনির,সহকারী মহাসচিব মাওলানা জাফর আহমদ,সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী,প্রচার সম্পাদক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়জী,হাফেজ মুহাম্মদ তৈয়্যব,মাওলানা মুহাম্মদ হারুন, মাওলানা আলী উসমান, ঝাউতলা মাদরাসা,বায়জিদ থানা হেফাজতের সভাপতি মাওলানা নুরুন্নবী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সামছুল হক জালাবাদী, মাওলানা মুহাম্মদ হোসাইন,মাওলানা মুসলেম উদ্দীন,মাওলানা ফয়জুল্লাহ,মাওলানা আশরাফ বিন ইয়াকুব প্রমূখ।

Sharing is caring!