স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫ টি পদের ৪ টি- ই শূন্য

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জুলাই ১৬, ২০২০
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫ টি পদের ৪ টি- ই শূন্য
  • নাজমুস সাকিব

প্রতিদিন একজন ডাক্তার ই পিওনের কাজ থেকে সব করে। কাজ ঝাড়ু দেওয়া, রুম গোছানো, আলমারি খুলে রোগীর মেডিসিন দেওয়া, দৈনিক গড়ে প্রায় ৬০-৮০ জন রোগী দেখা।

টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ফার্মাসিস্ট সাইফুল ইসলাম একাই করে যাচ্ছে হাসপাতালে ৫ শুন্য পদের দায়িত্ব পালন। প্রতিদিন তিনিই রোগী দেখেন, তিনিই মেডিসিন দেন আর তিনিই ঝাড়ু দেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৩-৪ টা রুম।

জানা যায়, এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫ টি পদ শুন্য পড়ে আছে প্রায় ১ বছর ধরে কিন্তু এখনো নতুন কেউ দায়িত্ব নিয়ে আসেনি, সর্বশেষ গাইনী ডাক্তার যিনি ছিলেন, তিনি বদলি হয়ে চলে যান অন্যত্র, মেডিকেল অফিসার হিসেবে যিনি ছিলেন তার পদ শুন্য মৃত্যুজনিত কারনে।

কিন্ত এলাকার সেবা তো দিতে হবে, সেই সেবা এল হাতেই সামলিয়ে যাচ্ছেন স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের ফার্মাসিস্ট সাইফুল ইসলাম। তবে তিনি রোগীকে প্রেসক্রিপশন দেন না, কারন আইনে উনার এখতিয়ারে এটা নেই। তবে যতটুকু পারেন মুখে মুখে বলে মেডিসিন এবং খাওয়ার নিয়ম বলে দিচ্ছেন এবং প্রয়োজনে অন্যত্র বিশেষজ্ঞ দের পরামর্শ নিতে বলছেন।

স্বাস্থ্যখাত এতো গুরুত্বপূর্ণ একটা প্রতিষ্ঠান, অথচ গ্রামাঞ্চলের এমন অসংখ্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এমন চিত্র দেখা যায়৷ আর এরকম অসংখ্য সাইফুল ইসলামও পাওয়া যায়, যারা নিজ সাধ্যের সর্বোচ্চ টা দিয়ে সেবা করেন মানুষের।

Sharing is caring!