সেতুমন্ত্রীও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করলো চরমোনাই পীরের ভাই

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জুন ৫, ২০২০
সেতুমন্ত্রীও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করলো চরমোনাই পীরের ভাই
  • আওয়ার বাংলাদেশ ডেস্ক

গণপরিবহনে ষাটভাগ ভাড়া বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য বিভাগে সীমাহীন দূর্নীতি জনগণকে জিম্মি করার শামিল। করোনা মহামারির কারণে জনজীবন যখন দূর্বিষহ তখন জনগণকে এক প্রকারের জিম্মি করে গণপরিবহণে একসাথে ষাট ভাগ ভাড়া বৃদ্ধি করে জনগণকে শোষণ করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন চরমোনাই পীরের ভাই, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী।

আজ এক ভিডিও বার্তায় প্রিন্সিপাল মাদানী বলেন, তেলের দাম না কমিয়ে এবং পরিবহণ সেক্টরের সীমাহীন চাঁদাবাজি ও দুর্নীতি বন্ধ না করে এভাবে জনগণকে শোষণ করছে সরকার।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগে সীমাহীন দূর্নীতির কারণে জনগণ সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। স্বাস্থ্যখাতের প্রায় সব টাকা লুট হয়ে যাচ্ছে, ফলে জনগণ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সেতুমন্ত্রীর খামখেয়ালীর কারণে একসাথে ষাটভাগ ভাড়া বৃদ্ধির নজির ইতিহাসে নেই। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জনগণকে চিকিৎসা সেবা না দিয়ে এ বিভাগকে লুটতরাজে পরিণত করেছে।

তিনি বলেন, বিমানসহ অন্য কোন সেক্টরে ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়নি শুধু ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে গণপরিবহনে। এজন্য সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে পদত্যাগ করা উচিত। গণপরিবহনে ভাড়া বৃদ্ধি প্রভাব সর্বত্র পড়তে শুরু করেছে। এজন্য প্রতিনিয়িত দেশে বিশৃঙ্খলা দেখা দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, সাধারণ মানুষের নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা। এর মাঝে ভোগ্যপণ্য ও কাঁচাবাজারে আগুন। এমতাবস্থায় সাধারণ মানুষের কী হবে তা নিয়ে সরকারের কোন নির্দেশনা নেই।

তিনি বলেন, কতিপয় মন্ত্রীর পকেট ভারি করতে এধরণের গণবিরোধী সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ গণবিরোধী সিদ্ধান্ত বাতিল করতে হবে।

Sharing is caring!