সীমান্তে উসকানি বন্ধ করতে ভারতের প্রতি চীনা সেনাবাহিনীর হুঁশিয়ারি

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জুন ১৭, ২০২০
সীমান্তে উসকানি বন্ধ করতে ভারতের প্রতি চীনা সেনাবাহিনীর হুঁশিয়ারি
  • আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির পশ্চিম কমান্ডের মুখপাত্র সিনিয়র কর্নেল ঝাং শুয়িলি
চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির পশ্চিম কমান্ডের মুখপাত্র সিনিয়র কর্নেল ঝাং শুয়িলি
ভারতকে গালওয়ান সীমান্তে সব ধরনের ‘উসকানিমূলক তৎপরতা’ বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে চীন। একইসঙ্গে দু’দেশের মধ্যকার বিতর্কিত বিষয়গুলো আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করার লক্ষ্যে নয়াদিল্লিকে ‘সঠিক পথে ফিরে আসার’ও আহ্বান জানিয়েছে বেইজিং।

চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির পশ্চিম কমান্ডের মুখপাত্র সিনিয়র কর্নেল ঝাং শুয়িলি বলেছেন, গত সোমবার রাতে ভারতীয় সেনারা দু’দেশের সীমান্তবর্তী গালওয়ান উপত্যকা অঞ্চল দিয়ে নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করার মাধ্যমে নিজেদের প্রতিশ্রুতি চরমভাবে লঙ্ঘন করে। যার ফলে দু’পক্ষের মধ্যে ‘রক্তক্ষয়ী শারিরীক সংঘাত ও হতাহতের ঘটনা’ ঘটে।

স্যাটেলাইট থেকে তোলা গালওয়ান উপত্যকার ছবি
ঝাং গতকাল (মঙ্গলবার) রাতে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে আরো বলেন, ভারত ও চীনের শীর্ষস্থানীয় সেনা কর্মকর্তাদের মধ্যে বৈঠকে যে সমঝোতা হয়ে রয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী তা ‘মারাত্মকভাবে লঙ্ঘন’ করেছে। তিনি দাবি করেন, গালওয়ান উপত্যকা সব সময় চীনের মালিকানায় ছিল এবং ভারতের এ পদক্ষেপ ছিল দ্বিপক্ষীয় সামরিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে মারাত্মক ক্ষতিকর।

পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ২০ জওয়ান নিহত হওয়ার পর চীনা সেনাবাহিনী ভারতের প্রতি এ আহ্বান জানাল। ভারতের সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এর আগে বলা হয়েছিল, সোমবার রাতের সংঘর্ষে এক কর্নেল এবং দুই সেনা নিহত হয়েছে। তবে গতকাল (মঙ্গলবার) রাতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, সংঘর্ষে তাদের অন্তত ২০ জওয়ান নিহত হয়েছে। ভারতের হামলায় চীনা সেনাবাহিনীরও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে নয়াদিল্লি জানালেও বেইজিং তা এখনো স্বীকার বা অস্বীকার করেনি।

Sharing is caring!