সিলেট এমসি কলেজে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ: অভিযুক্ত ছাত্রলীগ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০
সিলেট এমসি কলেজে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ:  অভিযুক্ত ছাত্রলীগ

সিলেট প্রতিনিধি- সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ছাত্রাবাসে গিয়ে ঐ তরুণী ও তার স্বামীকে উদ্ধার করেছে। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টায় শাহপরাণ থানা পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ছাত্রবাসে ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মীদের দায়ী করেছেন গণধর্ষণের শিকার তরুণীর স্বামী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) জ্যোতির্ময় সরকার জানান, তবে এ ঘটনায় কারা জড়িত তা এখনো নিশ্চিত করা যায়নি। তবে তদন্ত চলছে।

এমসি কলেজের অধ্যক্ষ সালেহ আহমদ বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে। তারা বিষয়টি দেখছে। তবে যতটুকু জেনেছি স্বামী-স্ত্রীকে কারা হোস্টেলে আটক করে রেখেছে।

জানা গেছে, স্বামীকে নিয়ে ঘুরতে শুক্রবার সন্ধ্যায় এমসি কলেজে গিয়েছিলেন ধর্ষণের শিকার হওয়া ঐ তরুণী। এসময় কলেজ ক্যাম্পাস থেকে ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী তাদেরকে জোরপূর্বক কলেজের ছাত্রবাসে নিয়ে যায়। সেখানে একটি কক্ষে স্বামীকে আটকে রেখে তরুণীকে গণধর্ষণ করে তারা। বর্তমানে ঐ তরুণী সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন শাহপরাণ থানার ওসি কাইয়ুম চৌধুরী। তিনি জানান, এই দম্পতি কি জন্য ছাত্রাবাসে ঢুকেছিল সেটি জানার চেষ্টা চলছে। তাদেরকে উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

Sharing is caring!