লোহাগাড়ায় ইউপি নির্বাচনে দায়ীত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে ককটেল হামলা

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত অক্টোবর ২১, ২০২০
লোহাগাড়ায় ইউপি নির্বাচনে দায়ীত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে ককটেল হামলা

আলমগীর ইসলামাবাদী

বিশেষ প্রতিনিধি

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া সদর উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে ককটেল হামলার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর ২ ০২০) দুপুরে সদর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট দেওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিলুফা ইয়াসমিন চৌধুরী। এ সময় তার গাড়ি লক্ষ্য করে পরপর দুটি ককটেল নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। এতে গাড়ি চালক মো. শাহেদ (৩০) গুরুতর আহত হন।

এদিকে আমিরাবাদ ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর আমিরাবাদ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইনামুল হাসানের গাড়ি লক্ষ্য করে ককটেল হামলা চালানো হয়। তবে এতে কেউ হতাহত হননি
হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে ম্যাজিস্ট্রেট নিলুফা ইয়াসমিন চৌধুরী বলেন, নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে অনিয়মের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। এ সময় আমার গাড়ি লক্ষ্য করে পরপর দুটি ককটেল নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। হামলায় আমি অক্ষত থাকলেও চালক গুরুতর আহত হয়েছে।
এছাড়াও লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ ১নং ওয়ার্ডের আমিরাবাদ সুফিয়া আলীয়া মাদরাসা কেন্দ্রে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়ালে দুইজন আহত হয়। এ সময় ভোট গ্রহণ সাময়িক স্থগিত করা হয়।

এদিকে ফটিকছড়ি উপজেলার সুয়াবিল ইউনিয়নের শোভনছড়ি জেএমসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েকেন্দ্রে সংঘর্ষের ঘটনায় তিনজন আহত হয়েছেন। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আহতরা হলেন- মো. আলী আকবর (৫০), মো. এমাজউদ্দিন (৩২) ও মো. জীহাদ (২০)। এদের মধ্যে আলী আকবর ও এমাজউদ্দিনের আঘাত গুরুতর।

Sharing is caring!