লঞ্চের ভাড়া বাড়ল ৩৫.২৯ শতাংশ, ধর্মঘট প্রত্যাহার

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত নভেম্বর ৭, ২০২১
লঞ্চের ভাড়া বাড়ল ৩৫.২৯ শতাংশ, ধর্মঘট প্রত্যাহার

আওয়ার বাংলাদেশ ডেস্ক: জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে বাড়ল লঞ্চের ভাড়াও। ৩৫ দশমিক ২৯ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে লঞ্চের ভাড়া। একইসঙ্গে চলমান লঞ্চ ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে।

রবিবার (৭ নভেম্বর) বিকেলে মতিঝিলের বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) কার্যালয়ে সরকারের সঙ্গে লঞ্চ মালিকদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

লঞ্চ ভাড়া ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত ১ টাকা ৭০ পয়সার পরিবর্তে ২ টাকা ৩০ পয়সা এবং ১০০ কিলোমিটারের ঊর্ধ্বে ১ টাকা ৪০ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ২ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। জনপ্রতি সর্বনিম্ন ভাড়া ১৮ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করছেন বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক। বৈঠকে আরও উপস্থিত আছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌচলাচল (যাপ) সংস্থার সভাপতি মাহবুব উদ্দিন আহমদ, সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট বদিউজ্জামান বাদল, বাংলাদেশ লঞ্চ মালিক সমিতির মহাসচিব শহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আমিনুর রহমান, বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তারাসহ লঞ্চ মালিকরা।

প্রসঙ্গত, ডিজেলের দাম বাড়ানোর প্রেক্ষাপটে ভাড়া বাড়ানোর কোনও সিদ্ধান্ত না নেওয়ায় শনিবার (৬ নভেম্বর) দুপুরের পর থেকে লঞ্চ চালানো বন্ধ রাখেন মালিকরা।

এর আগে রবিবার দূরপাল্লার বাস-মিনিবাসের ভাড়া গড়ে ২৭ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) ভাড়া নির্ধারণী কমিটি। একইভাবে মহানগর এলাকার বাসভাড়া ২৬ দশমিক ৫ শতাংশ বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে।

ভাড়া বাড়ানোর পর বাস ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছে বাস মালিক সমিতি।

তাইতা/আবা২৪

Sharing is caring!