মীরপুরে জাতীয় লেখক পরিষদের প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত অক্টোবর ৫, ২০১৯
মীরপুরে জাতীয় লেখক পরিষদের প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন

মুহাম্মদ বিন ওয়াহিদ

শুক্রবার, ৪টা অক্টোবর সকাল ১০টায় মিরপুরে অবস্থিত মাদরাসাতুল মারওয়ায় জাতীয় লেখক পরিষদ মিরপুর জোনের উদ্যোগে দেশব্যাপী চলমান সভার ধারাবাহিকতায় প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নন্দিত উপস্থাপক ফজলে রাববির উপস্থাপনায় যথাসময়ে কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয় প্রোগ্রামটি। মনমুগ্ধকর মরমী সংগীত পরিবেশন করেন রংধনুর সিনিয়র শিল্পী সৈয়দ আল হাসান ও ক্বারী বাশার মাহমুদ ।

শুরুতে ক্যারিয়ার বাংলাদেশের দায়িত্বশীলদের অংশগ্রহণে চলে ক্যারিয়ার গঠনের দিকনির্দেনামূলক পরিবেশনা। এরপর শুরু হয় প্রস্তুতিমূলক সভার কার্যক্রম।

সভায় বক্তব্য রাখেন তামাদ্দুন২৪ডটকম এর উপদেষ্টা সম্পাদক মাও.রুহুল আমীন সাদী, ড.মাও. শহিদুল ইসলাম ফারুকী, মুফতী কামরুল ইসলাম রাহমানী, মুফতী শায়খ মুহাম্মদ উসমান গণী, ডা. মাও. সৈয়দ শামছুল হুদা, মুফতী আফজাল হুসাইন, মাওলানা আবদুল গাফফার, মাও. আব্দুল্লাহ নাটোরী, রুহুল আমীন নগরী, আর জে মামুন চৌধুরী, আর জে মুস্তাফিজুর রহমান, মাওলানা কামালুদ্দীন ফারুকী, মহিম মাহফুজ, মুফতী খন্দকার মুজাম্মিল হক, মুফতী আজীজুল হক কাসেমী, মাঈনুদ্দীন ওয়াদুদ, মাহমুদ আরিফীন, মাওলানা খায়রুল বাশার, মাও. ফজলুর রহমান, নিজাম উদ্দীন আল আদনান, আবুবকর বিন রাশেদ, মাও. এহসান এইচ, উমর আলী আশরাফ, মুহাম্মদ বিন ওয়াহিদ, যুবাইর হাসানসহ আরো অনেকেই।

বক্তারা বলেন, বাতিলের বিরুদ্ধে জিহাদে জয়ী হতে হলে লেখকদের কলমকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করতে হবে। আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকতে পারি তাহলে নতুন সম্ভাবনার দুয়ার খুলবে। ইসলামী ও জেনারেল লেখকদের সমন্বয় করতে পারলে আলো ব্যাপক ফায়দা হবে। লেখকদের আরো সাহসী হতে হবে। সাহসীরাই সাহিত্য ও সাংবাদিকতায় ভালো করতে পারে।

বক্তারা আরো বলেন আমরা লেখক পরিষদকে এমন একটি সংগঠন হিসেবে পরিচিত করতে চাই যেনো সবাই বলে এটা আমার সংগঠন। হাজারো পারমানবিক বোমা থেকেও শক্তিশালী কলম। এই শক্তির সদ্ব্যবহার করতে হবে। এগিয়ে যেতে হলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার বিকল্প নেই। আমরা আল্লাহর খলিফা, সুতরাং খলিফা হওয়ার যোগ্যতা আমাদের ভেতর আনতে হবে। সুনিদৃষ্ট কর্মপরিকল্পনার আলোকে এগুলে বিজয় অর্জন সম্ভব।

বক্তারা আরো বলেন লেখক পরিষদের উপর আল্লামা আহমদ শফী, জুনায়েদ বাবুনগরী, আ.ফ.ম খালিদ হোসেন ও মাওলানা যোবায়ের চৌধুরীসহ বড়দের দুআ রয়েছে। এই সংগঠন এগিয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ। আমরা এখন আত্নরক্ষামূলক অবস্থানে আছি, সুতরাং সত্যের পথে বেঁচে থাকতে হলে আমাদের কাজ করতে হবে প্রচুর।

বরাবর একটায় প্রধান অতিথীর বক্তব্যের মাধ্যমে সমাপ্ত হয় জমকালো এই অনুষ্ঠানটি।

Sharing is caring!