মসজিদ ও মাদ্রাসাগুলো খুলে দিন, অন্যথায় তৌহিদী জনতা নিজেরাই খুলবে: মুফতী ফয়জুল করীম

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মে ৫, ২০২০
মসজিদ ও মাদ্রাসাগুলো খুলে দিন, অন্যথায় তৌহিদী জনতা নিজেরাই খুলবে: মুফতী ফয়জুল করীম

মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ আল মনির (বিশেষ প্রতিনিধি): ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম,শায়খে চরমোনাই চলমান করোনা মহামারীতে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে এক ভিডিও বার্তায় বলেন যে,

ইসলাম বিদ্বেষীরা মসজিদ খোলার অনুমতি দিবে না,মুসলিমদেরকেই মসজিদ খুলতে হবে। যদি সরকার খুলে দেন তো ভালো কথা, আর যদি না খুলে দেন, তাহলে তিনি আগামী শুক্রবার জুম্মার মসজিদে সকল মুসলমানকে একত্রিত হয়ে নামাজ পরার আহ্বান জানান।

তিনি দাবি করেন, সরকার কিভাবে করোনা শনাক্ত করবে? এটা মসজিদ থেকে সংক্রমিত হলো নাকি অন্য কোন জায়গা থেকে হলো, যেখানে শপিং মল, শিল্প-কারখানা, বাজার-দোকান সবকিছু খোলা,সেখানে সকল ধরনের মানুষ যাতায়াত করতেছে,সেখানে মসজিদ থেকে সংক্রমিত হবে, এটা একটা খোঁড়া যুক্তি,এ ধরনের যুক্তি কোন মুমিন মুসলমান মানতে পারেনা।

তাই তিনি সরকারকে বলেন, আপনি যদি আপনার ইজ্জত সম্মান ও অবস্থান ঠিক রাখতে চান, তাহলে শুক্রবার সকল মুসুল্লীদের পাক-পবিত্র অবস্থায় মসজিদে আসার অনুমতি দিন, যদি সরকার ব্যর্থ হয়, তাহলে মুসুল্লিরা তাদের সিদ্ধান্ত নিয়ে নিবে।

তিনি বলেন, কওমী মাদ্রাসায় ত্রানের নামে যেই তামাশা করেছে এটি তাঁর করা ঠিক হয়নি।

তিনি ত্রানের নামে চুরি- ডাকাতি,লুট-পাট বন্ধ করতে সরকারকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, যদি সরকার ব্যর্থ হন তাহলে আপনার এই চেয়ারে থাকার অধিকার নাই।

তিনি আরো বলেন, আজকে অনেক আলেম ইমামতি করতেন, মক্তবে পড়াতেন দীর্ঘদিন তা বন্ধ থাকায় তারা হতদরিদ্র অবস্থায় জীবন কাটাচ্ছে। তাই তাদের পাশে সকলকে দাড়ানোর জন্য আহ্বান জানান। এই লগডাউনে দলমত নির্বিশেষে যারা ত্রান বিতরণ করেছেন তাদের ধন্যবাদ জানান।

Sharing is caring!