মধ্যপ্রাচ্যের অধিকাংশ মসজিদগুলোতে এবার তারাবির নামাজ বন্ধ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত এপ্রিল ১৪, ২০২০
মধ্যপ্রাচ্যের অধিকাংশ মসজিদগুলোতে এবার তারাবির নামাজ বন্ধ

আওয়ার বাংলাদেশ: এবার রমজানে সৌদি আরবের কোনো মসজিদেই জামাতে তারাবির নামাজ পড়া হবে না। নিজ নিজ ঘরে তারাবির নামাজ পড়তে মুসল্লিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে দেশটির সরকার। রবিবার সরকারি মুখপাত্র জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস মহামারি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত মসজিদে জামাতে নামাজ আদায়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে।

একই পরিস্থিতিতে মিসরেও রমজানে মসজিদগুলোতে তারাবির নামাজ ও ইতেকাফ স্থগিত করেছে দেশটির সরকার। একই ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছে ইরানও।

সৌদি গেজেটের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এক টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে দেশটির ইসলামবিষয়ক মন্ত্রী শেখ ড. আব্দুল লতিফ বিন আবদুল আজিজ আশ-শেখ শিগগিরই মহামারি দূর হবে বলে আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘শুধু তারাবির নামাজ নয়, মসজিদে জামাতে নামাজ আপাতত বন্ধ রাখাই জরুরি। মসজিদে হোক, ঘরে হোক আল্লাহ সর্বশক্তিমান যেন তারাবির নামাজ কবুল করেন, আমরা সে দোয়াই করি। কারণ মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্যই ঘরে নামাজ পড়া।’

সৌদি সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী, এই মহামারিতে আক্রান্ত কারো মৃত্যু হলে তার পরিবারের পাঁচ থেকে ছয়জন জানাজায় অংশ নিতে পারবে। বেশি লোক সমাগমে ভাইরাস ছড়ানোর ঝুঁকি এড়াতেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘জানাজা কবরস্থানেই হওয়া উচিত। আর সেখানে অনেক লোকের জমায়েত হওয়া আপাতত ঠিক হবে না। অন্য যারা জানাজা পড়তে চায়, তারা বাড়িতে থেকেই পড়তে পারে। কেউ যদি মৃতের জন্য জানাজা পড়তে চায়, নিজের বাসায় তা পড়ার সুযোগ আছে।’

এদিকে মিসরের মসজিদগুলোতে রমজানের তারাবির নামাজ ও ইতেকাফ স্থগিত করেছে আওকাফ মন্ত্রণালয়। মিসরের ইতিহাসে তারাবি ও ইতেকাফ স্থগিতের এটিই প্রথম ঘটনা। মিসরের ধর্মীয় মন্ত্রণালয় দেশটির মসজিদে তারাবি ও ইতেকাফ আয়োজনে এ স্থগিতাদেশ জারি করে।

মিসরের আল-আজহার ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ইলেকট্রনিক ফতোয়া বোর্ড জানিয়েছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিরুদ্ধে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে যদি ডাক্তাররা দিনের বেলা করোনা সংক্রমিত কিংবা সংক্রমণের আশঙ্কায় থাকা রোজাদার ব্যক্তির মুখ ভিজিয়ে রাখার প্রয়োজনীয়তা মনে করেন, তবে রমজান মাসে তাদের জন্য রোজা ভাঙার ব্যাপারেও তারা মত দেন।

অন্যদিকে ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি শনিবার জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে বলেছেন, ‘করোনার কারণে এ বছর আসন্ন রমজান মাসে আমরা সম্মিলিত ইবাদত থেকে বঞ্চিত হতে যাচ্ছি। কিন্তু মহান আল্লাহর সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনেরও সুবর্ণ সুযোগ পেতে যাচ্ছি। কাজেই এ বিষয়ে উদাসীন থাকা উচিত হবে না।’

Sharing is caring!