মঠবাডিয়ায় ডাক্তার সেজে মাছবিক্রেতা গর্ভবতী নারীর অপারেশন করল

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জুলাই ১০, ২০২০
মঠবাডিয়ায় ডাক্তার সেজে মাছবিক্রেতা গর্ভবতী নারীর অপারেশন করল

মুহাম্মদ আঃ রহমান

বিশেষ প্রতিনিধি

পিরোজপুরের মঠবাডিয়ায় গোলাম মোস্তাফা নামের এক মাছ ব্যবসায়ী তার ক্লিনিকে নিজে ডাক্তার সেজে প্রসূতি মায়ের অপারেশন করার ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফাঁস হবার পর চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০৯ জুলাই) বিকেলে পিরোজপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পীযুষ কুমার চৌধুরীর নেতৃত্বে র‌্যাব-৮ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে তিনটি ক্লিনিকে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের অনুমতি না থাকা, এমবিবিএস ছাড়া সিজারিয়ান অপারেশন করাসহ বিভিন্ন অনিয়মের কারনে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে অর্থদন্ড এবং ভূয়া চিকিৎসক ও ক্লিনিকের মালিকসহ দুইজনকে কারাদন্ড দেয়া হয়।

এদের মধ্যে পৌর শহরের দক্ষিণ বন্দর মাছ বাজার সংলগ্ন মহিমা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার এর মালিক মাছ ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফা (৪০) কে ভূয়া ডাক্তার দিয়ে অপারেশন করার অপরাধে ৩ মাসের কারাদন্ড, ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এদিকে মহিমা ক্লিনিকের মালিক গোলাম মোস্তফার কারাদন্ডের খবর ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আইডিতে মোস্তফা তিনি ডাক্তার সেজে গর্ভবতী মায়েদের অপারেশন থিয়েটারে পোষাক পড়া সিজার করা ছবি সম্বলিত স্টাটাস দেয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে নিয়ে চলছে সমালোচনা ও নিন্দা এবং প্রতিবাদের ঝড় বইছে।

স্থানীয়রা জানান- এর আগেও মোস্তাফার বিরুদ্ধে তার ক্লিনিকের নার্সকে যৌন হয়রানী, ভূয়া ডাক্তার দ্বারা অপরেশনে এক প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

Sharing is caring!