ভারতে করোনায় আক্রান্ত হতে পারে ৩০ কোটি!

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মার্চ ২০, ২০২০
ভারতে করোনায় আক্রান্ত হতে পারে ৩০ কোটি!

আওয়ার বাংলাদেশ: কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাসের ভয়াল ছোবলে বিপর্যস্ত বিশ্ব। এরই মধ্যে ছড়িয়েছে প্রায় ১৭৯টি দেশে। প্রাণ হারিয়েছে ১০ হাজার ৬২ জন। আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ৪৭ হাজার। এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি প্রাণহানী ঘটেছে ইতালি, চীন, ইরান ও স্পেনে। তবে ভারতেও ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি করতে পারে করেনা। এমনটাই আভাস দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর ডিজিজ ডায়নামিকস, ইকোনমিকস অ্যান্ড পলিসি (সিডিডিইপি)।

সংস্থাটির পরিচালক বলেছেন, ভারতে করোনার ‘সুনামি’ বয়ে যেতে পারে। দেশটিতে ৩০ কোটি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন। তাদের মধ্যে ৪০ থেকে ৫০ লাখ মানুষের অবস্থা আশঙ্কাজনক হতে পারে।

সিডিডিইপির পরিচালক চিকিৎসক রামানান লক্ষ্মীনারায়ণ সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, শিগগিরই করোনাভাইরাস সংক্রমণের সুনামির মুখোমুখি হতে পারে ভারত। তিনি বলেন, যুক্তরাজ্য এবং যুক্তরাষ্ট্রে যে ধরনের গাণিতিক মডেল প্রয়াগ করা হয়েছে; একই মডেল যদি ভারতে প্রয়োগ করা হয় তাহলে দেশটিতে ৩০ কোটি মানুষ করোনা সংক্রমিত হতে পারেন। আক্রান্তদের মধ্যে ৪০ থেকে ৫০ লাখ মানুষের অবস্থা মারাত্মক হতে পারে।

প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তারের গতিতে লাগাম টানতে ভারত ইতোমধ্যে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। কিন্তু দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা করোনাভাইরাসের পরীক্ষা খুব অল্প মানুষের করায় অনেক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

ভারতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ২০৬ জন। এছাড়া এই ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ৫ এবং সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২০ জন।

এর আগে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভারতজুড়ে জনতা কারফিউ জারির ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, রোববার থেকে দেশে জনতা কারফিউ কার্যকর হবে। প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দেশের প্রত্যেক নাগরিককে এই কারফিউ বাধ্যতামূলকভাবে মেনে চলতে হবে।

একই দিনে দেশটির বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ আগামী সাতদিনের জন্য বিমানের আন্তর্জাতিক সব ফ্লাইট বন্ধ ঘোষণা করে। সূত্র-বিবিসি।

Sharing is caring!