বড়পুকুরিয়ায় কয়লা খনির ক্ষতিগ্রস্তদের সমন্বয় কমিটির সমাবেশ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত অক্টোবর ১২, ২০১৯
বড়পুকুরিয়ায় কয়লা খনির ক্ষতিগ্রস্তদের সমন্বয় কমিটির সমাবেশ

মোঃ ওমর ফারুক
ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ক্ষতিগ্রস্ত ২০ গ্রাম সমন্বয় কমিটির কাউন্সিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল শুক্রবার বিকালে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির দক্ষিণ গেট সংলগ্ন মৌপুকুর এলাকায় এই কাউন্সিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

কাউন্সিলে ২০ গ্রাম সমন্বয় কমিটির আহবায়ক বেনজির আহম্মেদকে সভাপতি ও সদস্য সচিব হাজি আইনুল হককে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ৫১ সদস্য কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে নির্বাচিত হয় ২০ গ্রাম সমন্বয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক মো. মশিউর রহমান বুলবুল।
২০ গ্রাম সমন্বয় কমিটির কাউন্সিল ও সমাবেশে ফুলবাড়ী সরকারি কলেজের (অব.) উপাধক্ষ্য ও কয়লা খনির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত মহেষপুর গ্রাম কমিটির সভাপতি আব্দুল গফুরের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাম কমিটির সভাপতি মতিয়ার রহমান, সমন্বয় কমিটির অন্যতম সদস্য মামুনুর রশিদ, ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাম কমিটির সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য সাইদুর রহমান, সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা নুরল হক প্রমূখ।
২০ গ্রাম সমন্বয় কমিটির প্রধান উপদেষ্টা মশিউর রহমান বুলবুল বলেন বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির কারণে যখন একের পর এক গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল। গ্রামবাসীরা যখন দিশেহারা হয়ে পড়েছিল সেই সময় ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামবাসীদের দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ২০১৬ সালের নভেম্বর মাসে ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামবাসীদের সাথে নিয়ে গঠিত হয় ২০ গ্রাম সমন্বয় কমিটি।
তিনি বলেন এই ২০ গ্রাম সমন্বয় কমিটির আন্দোলনের মুখে খনি গর্ভে হারিয়ে যাওয়া বড়পুকুরিয়া ঐতিহ্যবাহী ঈদগাহ মাঠ পুনঃনির্মাণ, রাস্তাঘাটের উন্নয়ন ও ফাঁটল ধরা ঘরবাড়ীর ক্ষতিপূরণ আদায় করা হয়েছে। আগামী দিনেও ২০ গ্রাম সমন্বয় কমিটি তাদের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
সমাবেশ ও কাউন্সিলে প্রধান ও বিশেষ অতিথি হিসেবে পার্বতীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুল ইসলাম প্রামানিক ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন উপস্থিত না থাকায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কমিটির প্রধান উপদেষ্টা মশিউর রহমান বুলবুল।

Sharing is caring!