বেফাকের তিন কোটি বাজেট ঘোষণা: হাটহাজারী পরিস্থিতি আড়াল করার অভিযোগ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জুন ১৮, ২০২০
বেফাকের তিন কোটি বাজেট ঘোষণা: হাটহাজারী পরিস্থিতি আড়াল করার অভিযোগ

একে সৈকত 

বিশেষ প্রতিনিধি

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সরকারের নির্দেশনায় কওমি মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় কওমি মাদ্রাসার শিক্ষক ও কর্মচারীরা বেতন ইত্যাদিতে যথেষ্ট বেকায়দায় আছেন।

বেফাক কওমি মাদ্রাসার বেকায়দায় পড়া শিক্ষক ও কর্মচারীদের জন্য শুরু থেকেই আর্থিক সহায়তা প্রদানের ঘোষণা দিলেও এযাবৎ কার্যকরী কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। রমজানের শুরুতে গ্রাম ও উপজেলাস্থ  মাদ্রাসাগুলোর শিক্ষক ও স্টাফদের তালিকা নিলেও অজ্ঞাত কারণে তা হারিয়ে যায়।
পরবর্তীতে লকডাউন শেষের আগে সহায়তা পৌছানো সম্ভব নয় বলে ঘোষণা দিলেও দিন দশেক পূর্বে আবার তৎপর হয়ে উঠে বেফাক কর্তৃপক্ষ। গ্রাম ও উপজেলাস্থ মাদ্রাসা সমূহের তালিকা সংগ্রহ করে সহায়তা প্রদানের কাজে সচেষ্ট হয়, বেফাকের ওয়েবসাইটে কল্যাণ তহবিল গঠনের ঘোষণা দিয়ে কল্যাণ তহবিলে সহায়তার অনুরোধ জানান।
আজ কয়েকটি অনলাইন মিডিয়ায় বেফাকের তরফ থেকে ৩কোটি টাকা অনুদান দেয়ার একটি সূত্রহীন নিউজ প্রচারিত হয়।
তবে কবে নাগাদ এই অনুদান দেয়া শুরু হচ্ছে তা কিছু বলা হয়নি।
এই বিষয়ে কল্যাণ তহবিলের সাথে সংশ্লিষ্টদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা এই বিষয়ে কথা বলতে নিষেধ রয়েছে বলে জানান, এবং এই বিষয়ে কথা বলতে বেফাকের তরফ থেকে মাওলানা মাহফুজুল হক সাহেবকে দায়িত্ব দেয়া হয়ছে বলে জানান। মাওলানা মাহফুজুল হক সাহেবের সাথে এই বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে উনার থেকে কোন তথ্যবহুল সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

তবে বেফাকের মহাসচিব আল্লামা আব্দুল কুদ্দুস সাহেব দা.বা. এর উপস্থিতিতে গতকাল হাটহাজারী মাদ্রাসায় ঘটে যাওয়া দূর্ঘটনার পর আজকে হঠাৎ ৩কোটি টাকা সহায়তা প্রদানের খবর নিয়ে ফেসবুক পাড়ায় হাসিঠাট্টা চলছে। অনেকেই ৩কোটি টাকা সহায়তার এই ঘোষণাকে হাটহাজারীর ঘটনা আড়াল করা ও দামাচাপা দেয়ার ইস্যু হিসেবে মনে করছেন।

আবার অনেকে একথাও বলছেন যে, যেখানে সরকারের ৮ কোটি টাকার অনুদান কিছুই হয়নি, সেখানে বেফাকের ৩ কোটি টাকা দিয়ে কী হবে?

Sharing is caring!