বেনজীর ও র‍্যাব ডিজিসহ ৬ কর্মকর্তার যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১১, ২০২১
বেনজীর ও র‍্যাব ডিজিসহ ৬ কর্মকর্তার যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

আওয়ার বাংলাদেশ ডেস্ক: ব়্যাবের মহাপরিচালকের দায়িত্বে থাকার সময় ‘মাদকবিরোধী যুদ্ধে’ মানবাধিকারের চূড়ান্ত লঙ্ঘন হয়েছে। এমন অভিযোগে শুক্রবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বেনজীর আহমেদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ দপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর প্রকাশ করা হয়।

এতে বলা হয়, শুক্রবার আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসের এ দিনে মার্কিন অর্থ দপ্তরের ফরেন অ্যাসেটস কন্ট্রোল অফিস (ওএফএসি) মোট ১০টি প্রতিষ্ঠান ও ১৫ জন ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে- যারা মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং নিপীড়নের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। এই তালিকাভুক্তদের অন্যতম হচ্ছে বাংলাদেশের র‍্যাব ও এর ছয় কর্মকর্তা। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত ছয় কর্মকর্তা হচ্ছেন- চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন (র‍্যাবের বর্তমান মহাপরিচালক), বেনজির আহমেদ (সাবেক র‍্যাব মহাপরিচালক, জানুয়ারি ২০১৫-এপ্রিল ২০২০), খান মোহাম্মদ আজাদ (বর্তমান অতিরিক্ত মহাপরিচালক-অপারেশন্স), তোফায়েল মুস্তাফা সরওয়ার (সাবেক অতিরিক্ত মহাপরিচালক-অপারেশন্স, জুন ২০১৯-মার্চ ২০২১), মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম (সাবেক অতিরিক্ত মহাপরিচালক-অপারেশন্স, সেপ্টেম্বর, ২০১৮-জুন, ২০১৯), এবং মোহাম্মদ আনোয়ার লতিফ খান (সাবেক অতিরিক্ত মহাপরিচালক-অপারেশন্স, এপ্রিল, ২০১৬-সেপ্টেম্বর ২০১৮)।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশের বেসরকারি সংগঠনগুলো অভিযোগ করেছে যে র‍্যাব এবং অন্যান্য আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা ২০০৯ সাল থেকে প্রায় ৬০০টি বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, ছয় শতাধিক লোকের নিখোঁজ হয়ে যাওয়া এবং নির্যাতনের জন্য দায়ী। কিছু রিপোর্টে আভাস পাওয়া যায় যে এসব ঘটনায় বিরোধীদলীয় সদস্য,সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মীদের টার্গেট করা হয়েছে- বলা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

Sharing is caring!