বেতন ভাতা ও চাকুরী স্থায়ী করণের দাবীতে ভোলায় শেলটেক শ্রমিকদের বিক্ষোভ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মে ৫, ২০২০
বেতন ভাতা ও চাকুরী স্থায়ী করণের দাবীতে ভোলায় শেলটেক শ্রমিকদের বিক্ষোভ
  • মনিরুল ইসলাম মুহিন
  • বিশেষ প্রতিনিধি

বকেয়া বেতন ভাতা ও চাকরী স্থায়ীকরণের দাবীতে ভোলায় শেলটেক সিরামিক ইন্ডাষ্ট্রি লিমিটেডের কয়েক শতাধিক শ্রমিকরা আন্দোলন ও বিক্ষোভ মিছিল করে। সোমবার (০৪ মে) সকালে ইন্ডাষ্ট্রির সামনে কয়েক শ্রমিক এই বিক্ষোভ মিছিল করে মার্চ থেকে ২ মাসের বেতন ও চাকরী স্থায়ী করার দাবি জানায়। ২ মাসের বেতন না পাওয়ায় শ্রমিকরা মানবতর জীবন যাপন করছেন বলে এসময় তারা জানিয়েছেন। পরে শেলটেক কর্তৃপক্ষের পক্ষে ৩ দিনের মধ্যে বেতন ভাতা দেয়ার আশ্বাস প্রদান করায় শ্রমিকরা আন্দোলন স্থগিত করে।

একাধিক শ্রমিক বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে শেলটেক সিরামিক ইন্ডাষ্ট্রি লিমিটেড কর্তৃপক্ষ ফ্যাক্টরি বন্ধ ঘোষণা করে। ফ্যাক্টরি বন্ধ ঘোষণা করা হলেও গত ২ মাসের বেতন দেওয়া হচ্ছে না। বেতনের জন্য কর্তৃপক্ষকে জানালে তারা এ বিষয়ে কোন কর্ণপাত করছে না। তারা বলেন, এই সামান্য বেতন দিয়ে আমাদের সংসার চালাতে হয়। কিন্তু এখন বেতন বন্ধ করে দেওয়ায় আমরা মানবেতন জীবনযাপন করছি। এছাড়াও শেলটেক কর্তৃপক্ষ আমাদের নিয়োগের ৩ বছর অতিবাহিত হওয়ার পরও এখনও চাকরী স্থায়ী করছেন না। আমরা যদি সুস্বাস্থ্যতার কারণে একদিন ডিউটিতে আসতে না পারি তাহলে আমাদের বেতন কর্তন করা হয়।

আমাদেরকে চাকরী নিয়ম অনুযায়ী কোন সুযোগ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না। তাই আমরা সুবিধা বঞ্চিত শ্রমিকরা আমাদের দাবী আদায়ের জন্য আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছি। যতদিন পর্যন্ত আমাদের দাবী আদায় না হবে, ততদিন পর্যন্ত এই আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। ভোলা শেলটেক সিরামিক ইন্ডাষ্ট্রি লিমিটেড এইচ আর এডমিন শাফকাত শরীফ জানায়, আমরা উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে ৩দিনের মধ্যে বেতন দেওয়ার চেষ্টা করবো পাশাপাশি যাদের কাজের পারর্ফম ভালো তাদেরকে স্থায়ী করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন।

Sharing is caring!