বিয়ের অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা উপহার পেঁয়াজ !

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত নভেম্বর ১৬, ২০১৯
বিয়ের অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা উপহার পেঁয়াজ !

অনলাইন ডেস্ক:

সারাদেশে পেঁয়াজের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধিতে মানুষের ক্ষোভ যখন চরমে তখন একটি বিয়ের বৌ-ভাত অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে পেঁয়াজ দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। কুমিল্লা সদর উপজেলার ঘটনাটি। এই উপহার অনুষ্ঠানে আসা অতিথিদের মাঝে বেশ হাস্যরসের জন্ম দেয়। এ নিয়ে ৩২ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে বেশ আলোড়ন তৈরি হয়। জানা যায়, শুক্রবার দুপুরে কুমিল্লা সদর উপজেলার কালখাড়পাড় এলাকায় রিপন মিয়ার বাড়িতে ব্যতিক্রমী এ ঘটনা ঘটে। এমন উপহার দেয়ায় ওই এলাকায় ঘটনাটি রীতিমতো বেশ সাড়া ফেলেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মচারী ও কালখাড়পাড় এলাকার হাজী আবদুর রহিমের ছেলে ইমদাদুল হক রিপনের বিয়ে হয়। আর গতকাল শুক্রবার তার বাড়িতে বৌ-ভাতের আয়োজন করা হয়। দুপুরে রিপনের তিন বন্ধু সহিদ, শিপন ও শাহজাহান ৫ কেজি পেঁয়াজ বাজার থেকে ১ হাজার টাকায় কিনে উপহার হিসেবে নিয়ে যায়। রঙিন র‌্যাপিং পেপারে মোড়ানো ছিলো পেঁয়াজের বাক্সটি। তবে বাক্সের বাইরে থেকে পেঁয়াজ দেখার ব্যবস্থাও ছিল। তাই বিয়ে বাড়িতে যারাই এসেছিলেন তাদের সবার কৌতুহলী দৃষ্টি ছিল ওই বাক্সের দিকে। মোবাইল ফোনে ব্যতিক্রমী ওই উপহারের ছবি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন অতিথিরা। এক সময় সেটি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও। দিন গড়িয়ে বিকেলে অনুষ্ঠান যখন শেষ হয়, তখন বাক্স খোলার পালা। সবাই জানতো ভেতরে পেঁয়াজ তবুও বিয়ে বাড়ির কারও আগ্রহের কমতি ছিল না ওই বাক্স নিয়ে। বাক্স খোলার পর অনেকেই ব্যস্ত হয়ে পড়েন ভিডিও ও ছবি তুলতে। এ বিষয়ে বর ইমদাদুল হক রিপন জানান, বন্ধুরা মজা করে এমন উপহার এনেছে। তবে বিষয়টি চিরদিন মনে থাকবে। আমার বিয়েতে যতো পুরস্কার পেয়েছি সবচেয়ে মূল্যবান মনে করবো এই পেঁয়াজের উপহারকে। কারণ, পুরো বাংলাদেশ এখন পেঁয়াজের ঝাঁঝে অস্থির। তিনি বলেন, হয়তো আমার বন্ধুদের এ পেঁয়াজ উপহার একটি নীরব প্রতিবাদও হতে পারে।

Sharing is caring!