বিপুল অস্ত্রসহ ইসরায়েলের গুপ্তচর গ্রেপ্তারের দাবি ইরানের

আওয়ার বাংলাদেশ ডেস্ক ২৪
প্রকাশিত জুলাই ২৮, ২০২১
বিপুল অস্ত্রসহ ইসরায়েলের গুপ্তচর গ্রেপ্তারের দাবি ইরানের

ইসরায়েলের হয়ে কাজ করা একটি গুপ্তচর দলের সদস্যদের গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে ইরান। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

গতকাল মঙ্গলবার তেহরান জানায়, ইরানের নিরাপত্তা বাহিনী ওই গুপ্তচরদের গ্রেপ্তার করে। তারা গুপ্তস্থানে রাখা অস্ত্রশস্ত্রও জব্দ করেছে। এসব অস্ত্রশস্ত্র ইরানে পানিসংকট নিয়ে সৃষ্ট সাম্প্রতিক বিক্ষোভের সময় ব্যবহার করার পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

পানির দাবিতে সম্প্রতি ইরানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়। খাওয়া ও চাষাবাদের জন্য পানির সরবরাহ বাড়ানোর দাবিতে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ হয়। এ বিক্ষোভ পরে রাজনৈতিক রূপ পায়। অন্যান্য এলাকাতেও বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে বিক্ষোভ সহিংস রূপ নেয়। এতে হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটে।

পানিসংকট নিয়ে বিক্ষোভের ঘটনার পর তেহরান ইসরায়েলের হয়ে কাজ করা গুপ্তচর দলের সদস্যদের গ্রেপ্তার করার কথা জানাল।

তেহরান প্রায়ই অভিযোগ করে থাকে, তার শত্রুরা, বিশেষ করে ইসরায়েল, যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব ইরানে বিক্ষোভ ও সহিংসতায় ইন্ধন দিয়ে দেশটিকে অস্থিতিশীল করতে চায়।

ইরানি কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, পানি নিয়ে দেশটিতে সংঘটিত সাম্প্রতিক বিক্ষোভে যাতে সহিংসতা হয়, রক্তপাত হয়, সে জন্য উসকানি দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ইরানের ভাষ্য, শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ চলছিল। বিক্ষোভে কে বা কারা গুলি চালিয়েছে। এতে হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বিক্ষোভে গুলি চালানোর ঘটনা ও মৃত্যুকে ‘রহস্যজনক’ বলেছে তেহরান।

তবে মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো বলছে, ইরানের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরাই বিক্ষোভে গুলি চালিয়েছেন। তাঁদের চালানো গুলিতেই হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

ইরানের গোয়েন্দাবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, শহরে দাঙ্গায় অস্ত্রশস্ত্র ব্যবহার করতে চেয়েছিল ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের লোকজন। তারা গুপ্তহত্যা চালাতে চেয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

এ দাবির বিষয়ে ইরানের ওই কর্মকর্তা বিস্তারিত কোনো তথ্য দেননি। এ ছাড়া কতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাও জানানো হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা বলেন, জব্দ করা অস্ত্রশস্ত্রের মধ্যে রয়েছ পিস্তল, গ্রেনেড, অ্যাসল্ট রাইফেল ও গুলি। পানি নিয়ে বিক্ষোভের সময় এসব অস্ত্রের মধ্যে কিছু ব্যবহার করা হয়েছিল।

ইরানের অভিযোগের বিষয়ে ইসরায়েলের কাছ থেকে কোনো তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানতে পারেনি বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

Sharing is caring!