বিতর্কিত এনআরসির বিরুদ্ধে সমমনা ইসলামী দলের বিক্ষোভ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত ডিসেম্বর ২০, ২০১৯
বিতর্কিত এনআরসির বিরুদ্ধে সমমনা ইসলামী দলের বিক্ষোভ

মাহমুদুল হাসান ত্বহা

ঢাকা মহানগর প্রতিনিধি:

এনআরসির নামে ভারত থেকে মুসলিম বিতাড়ণের চক্রান্তের প্রতিবাদে ঢাকায় সমমনা ইসলামী দলসমূহের বিক্ষোভ সমাবেশ ভারতের এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন বাতিলের বিরুদ্ধে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে: ড. আহমদ আবদুল কাদের ঢাকা, ২০ ডিসেম্বর ২০১৯: এনআরসি ও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের নামে ভারত থেকে মুসলিম বিতাড়ণের চক্রান্তের প্রতিবাদে ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সমমনা ইসলামী দলসমূহ। আজ শুক্রবার বাদ জুম্মা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তরে গেইটে খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের সভাপতিত্বে এ সমাবশে অনুষ্ঠিত।  সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেন, ভারতের সাম্প্রদায়িক এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন বাতিলের বিরুদ্ধে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এনআরসি- নাগরিকত্ব আইনকে ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয় বলতে চাচ্ছেন। কিন্তু এনআরসি- সিএএ ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয় নেই। ইতোমধ্যেই আসামে এনআরসি’র মাধ্যমে ১৯ লক্ষ মানুষকে নাগরিকত্বহীন করা হয়েছে যারা বাংলাভাষী ও মুসলমান। আসাম থেকে এসব মানুষদের তাড়িয়ে দিলে আমাদের দেশের কি অবস্থা হবে। মিয়ানমার থেকে ইতোমধ্যেই ১০ লক্ষ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। সম্প্রতি কুষ্টিয়া-বোনাপোল সীমান্ত দিয়ে বহু মানুষকে বাংলাদেশে পুশব্যাক করা হয়েছে। সুতরাং ভারতের এনআরসি- সিএএ বাংলাদেশের জন্যে একটি বড় সমস্যা। এর বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারকে কথা বলতে হবে, কড়া প্রতিবাদ জানাতে হবে।  আজ শুক্রবার বাদ জুম্মা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তরে গেইটে অনুষ্ঠিত সমাবশে মধ্যে বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহসভাপতি মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব শায়খুল হাদীস মাওলানা মামুনুল হক, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মহাসচিব এডভোকেট কাজী আবুল খায়ের, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের সাংগঠনিক ড. মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন, খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব শেখ গোলাম আসগর, মাওলানা তোফাজ্জ হোসেন মিয়াজী, মাওলানা আজিজুল হক, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা আতাউল্লাহ আমিন, মাওলানা আজিজুর রহমান হেলাল, মাওলানা মুহাম্মদ ফয়সল, মাওলানা জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের যুগ্মমহাসচিব মুফতি মুনির, মাওলানা নাসির উদ্দিন, মুসলিম লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের মাওলানা আবুবকর সিদ্দিক প্রমুখ।  জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহসভাপতি মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী বলেন, ভারতের বিজেপি সরকার এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইনের নামে মুসলমান ও বাংলাভাষীদের রাষ্ট্রহীন করার চক্রান্ত করছে। ভারতের এ সাম্প্রদায়িতক ও অমানবিক আচরণের বিরুদ্ধে সবাইকে সোচ্চার হতে হবে। সারাদেশে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।  বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব শায়খুল হাদীস মাওলানা মামুনুল হক বলেন, সম্পূর্ণ অযৌক্তিকভাবে ভারতের বিজেপি সরকার এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন করেছে। আসলে ভারতের আদিবাসী মুসলমানদের বাংলাদেশসহ পার্শবর্তী দেশে ঠেলে দিয়ে ভারতে রাম রাজত্ব কায়েম করতে চায়। কিন্তুমনে রাখাতে হবে ভারতের স্বাধীনতার নায়ক মুসলমানদের তাড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে, মুসলমনাদের অস্তি¡হীন করার চেষ্টা করলে ভারতের অস্তিত্বই বিপন্ন হবে, ভারত ভেঙ্গে খান খান হয়ে যাবে ৷

Sharing is caring!