বামুক ঢাকা বিভাগীয় সভাপতির ইন্তেকাল: পীর সাহেব চরমোনাইর শোক  

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মে ৪, ২০২০
বামুক ঢাকা বিভাগীয় সভাপতির ইন্তেকাল: পীর সাহেব চরমোনাইর শোক  

সাইফুল্লাহ আল মনীর 

চরমোনাই মরহুম পীর সাহেব (রঃ) -এর একান্ত সহচর, বাংলাদেশ কুরআন শিক্ষা বোর্ডের সাবেক ঢাকা মহানগর সভাপতি, বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির ঢাকা বিভাগীয় সদর, হাফেজ মাওলানা মুহাম্মাদ খলীলুর রহমান রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে বারোটায় ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিকস ও স্নায়ুবিক দুর্বলতায় ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৬৮ বৎসর।

তিনি ভাকুর্তা, সাভারে প্রতিষ্ঠিত দাওরা হাদীস মাদরাসা ‘জামিয়া ইসলামিয়া নুরুল কুরআন কমপ্লেক্স”- এর প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক ছিলেন। এছাড়া আদাবর ১৩ নম্বর রোডে অবস্থিত জান্নাতুল ফেরদাউস জামে মসজিদের খতিব এবং বায়তুল আমান হাউসিং সোসাইটি জামে মসজিদের পেশ ইমাম ছিলেন। তিনি মৃত্যুকালে স্ত্রী, ৩ ছেলে ও ৩ মেয়ে রেখে গেছেন। তার ছেলে-মেয়ে ও জামাতারা প্রায়ই সবাই আলেম ও হাফেজ।

তাঁর গ্রামের বাড়ি বরিশালের মুলাদী উপজেলার সোনামুদ্দীন বন্দরে।

দেশের করোনা পরিস্থিতিতে সরকারী বিধিবিধান মেনে আজ সকাল ৯ টায় জানাজা শেষে নিজের হাতে গড়া সাভারের ভাকুর্তায় অবস্থিত ‘জামিয়া ইসলামিয়া নূরুল কুরআন কমপ্লেক্স” -এর আঙ্গিনায় চিরদিনের জন্য শায়িত করা হবে।

এদিকে হাফেজ মাওলানা খলীলুর রহমান হুজুরের ইন্তেকালে মুফতি সৈয়দ মু. রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই ও মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই গভীর শোক প্রকাশ ও মহান রাব্বুল আলামীনের নিকট উনার রুহের মাগফিরাত কামনা করেছেন।

আল্লাহ তাঁকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসীব করুন।

Sharing is caring!