বাঁশখালীতে আওয়ামী ওলামালীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত আগস্ট ১৭, ২০২০
বাঁশখালীতে আওয়ামী ওলামালীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

আলমগীর ইসলামাবাদী
বিশেষ প্রতিনিধি

বাঁশখালীতে আওয়ামী ওলামালীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী ওলামালীগের উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার (১৬ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার বিআরডিবি হলরুমে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী ওলামালীগের সভাপতি মাওলানা আক্তার হোসাইন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাঁশখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও বাহারছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তাজুল ইসলাম। বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী ওলামালীগের সাধারণ সম্পাদক দিদারুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন, পৌরসভা আওয়ামীলীগ নেতা আক্তার হোসেন, যুবলীগ নেতা হামিদ উল্লাহ, মাহামুদুল ইসলাম, পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ফজলুল করিম জিফু, ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা আক্তার হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা মিজান সিকদার, নাঈম উদ্দিন মাহফুজ, মিজানুর রহমান, ইমরুল হক চৌধুরী ফাহিম, রিয়াদুল ইসলাম রণি, গাজী আল্ আমিন, শাহিদুল ইসলাম, ওলামালীগ নেতা মাওলানা বোরহান উদ্দিন, মাওলানা হারুনুর রশীদ, মাওলানা মো. আশরাফ, মাওলানা মো. সাজ্জাদ সেলিম, মাওলানা নুরুল ইসলাম, মাওলানা মনির উল্লাহ, মাওলানা বেলাল আহমদ, মাওলানা আবুল কাশেম, মাওলানা মাহামুদুল ইসলাম, মাওলানা সাহাব উদ্দিন ও মাওলানা ছৈয়দুল আলম প্রমুখ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাঁশখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তাজুল ইসলাম বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাজাকার আলবদরদরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে নৃশংস ভাবে হত্যা করেছিল। সেই স্বাধীনতা বিরোধী শত্রুরা এখনো সক্রিয় রয়েছে। তারা সেদিন জাতির পিতাকে হত্যা করে ক্ষান্ত হয়নি। বর্তমানে জাতির পিতার বংশধরদেরও সমূলে বিনাশ করতে উঠে পড়ে লেগেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল এদেশকে একটি স্বাধীন সার্বভৌম ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত দেশ হিসেবে গড়ে তোলার। জাতির পিতার সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়নে তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা অকান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। বিএনপি জামায়াত সরকারের আমলে বাঁশখালীতে কোন ধরনের উন্নয়ন কর্মকা- পরিচালিত হয়নি। তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতা আসার পর এবং বাঁশখালীতে আওয়ামীলীগের মনোনীত সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর অনেক উন্নয়ন কাজ পরিচালিত হয়েছে। আরো অনেক উন্নয়ন কাজ এখনো চলমান রয়েছে। কিন্তু আওয়ামীলীগের লেবাজধারী জামায়াত শিবিরের একটি সিন্ডিকেট সেই উন্নয়ন কাজ ভুলুন্টিত করার জন্য বিভিন্ন ভাবে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। সেই ষড়যন্ত্রকারীদের কঠোর হস্তে দমন করার জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান তিনি।’

Sharing is caring!