বগুড়ায় পুলিশের ওপর হামলা করে আসামি ছিনতাই

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ২, ২০২১
বগুড়ায় পুলিশের ওপর হামলা করে আসামি ছিনতাই

বগুড়ার শিবগঞ্জে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে আসামি ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর আগে বিকেলে সোনাতলা থানার ঝিনারপাড়া গ্রাম থেকে পুলিশ আবুল কালাম নামের এক ব্যক্তিকে আটক করে নিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার দুপুরে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম বদিউজ্জামান এ তথ্য জানিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেলে শিবগঞ্জ থানার মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই আনিস ও এএসআই মিজান সোনাতলা থানার ঝিনারপাড়া গ্রামে যান। তারা ওই গ্রামের সেকান্দার আলীর ছেলে আবুল কালামকে (৪০) আটক করে হাতে হ্যান্ডকাফ লাগায়। এ সময় তার পরিবারের লোকজন ও স্বজনরা আটকের কারণ জানতে চায় পুলিশের কাছে। পরে পুলিশ জানায় তার কাছে ফেনসিডিল পাওয়া গেছে। কিন্তু ফেনসিডিল দেখাতে না পারায় গ্রামের লোকজন পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে আবুল কালামকে ছিনিয়ে নেয়।

আবুল কালামের স্বজনদের অভিযোগ, পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে পকেটে ফেনসিডিল ঢুকিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য টুকু মিয়া বলেন, শিবগঞ্জ থানা পুলিশ সোনাতলা থানা এলাকায় ঢুকে কোনো অভিযোগ ছাড়াই আবুল কালামকে মাদক কারবারের অভিযোগে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তার স্বজনরা ছিনিয়ে নেয়।

এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম বদিউজ্জামান বলেন, আবুল কালাম একজন মাদক কারবারি। তার বাড়ি সোনাতলা থানায় হলেও শিবগঞ্জ থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। এ সময় আসামির আত্মীয়-স্বজনরা পুলিশকে মারধর করে তাকে ছিনিয়ে নেয়। আসামির স্বজনদের হামলায় এসআই আনিস ও এএসআই মিজান আহত হয়েছে। এ ঘটনায় এসআই আনিস মামলা করেছেন। ওই মামলায় রাতেই পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ দিকে সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম জানান, আবুল কালামের নামে সোনাতলা থানায় মামলা থাকলেও বর্তমানে জামিনে আছেন।

Sharing is caring!