ফেনীতে চকলেটের লোভ দেখিয়ে ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯
ফেনীতে চকলেটের লোভ দেখিয়ে ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ

নুরুল হুদা মিয়াজী রাসেল

ফেনী শহর প্রতিনিধি:

ফেনী সোনাগাজী উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের আহম্মদপুরে ৬ বছর বয়সী এক শিশুকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রবিবার থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ, ছাত্রীর পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই শিশু স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী। শনিবার ক্লাস শেষে বাড়িতে ফিরে সে পুকুরে গোসল করতে যায়। এসময় আইয়ুব আলী (৫৫) নামের এক ব্যক্তি তাকে চকলেট কিনে দেওয়ার কথা বলে ডাক দেন। তার ডাকে সাড়া না দেওয়ায় পুকুরঘাট থেকে ওই শিশুকে মুখ চেপে ধরে পাশের বাগান নিয়ে ধর্ষণ করেন তিনি। শিশুটি চিৎকার করলে আইয়ুব দ্রুত পালিয়ে যান। লোকজন এগিয়ে গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে স্থানীয়ভাবে তার চিকিৎসা করানো হয়। বিষয়টি জানাজানি হলে শনিবার রাতেই পুলিশ ঘটনায় অভিযুক্ত আইয়ুব আলীকে বাড়ি থেকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন অভিযোগ করেন, আইয়ুব আলীর পক্ষ হয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) এক সদস্য ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন এবং শিশুটির পরিবারকে থানায় যেতে বাধা দেন। এই অভিযোগের বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান জহিরুল আলম জহির বলেন, শিশু ধর্ষণের ঘটনাটি শোনার পর তিনি পুলিশকে জানিয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন। তবে ইউপি সদস্য যে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন, সে অভিযোগের বিষয়ে তিনি কিছু বলতে রাজি হননি। সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মঈন উদ্দিন আহমেদ ঘটনার সত্যতা ও ধর্ষককে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা হয়েছে। আসামিকে আদালতে হাজির করা হবে।

Sharing is caring!