পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা: অনুসন্ধান করবে নৌ মন্ত্রণালয়

আওয়ার বাংলাদেশ ডেস্ক ২৪
প্রকাশিত জুলাই ২৯, ২০২১
পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা: অনুসন্ধান করবে নৌ মন্ত্রণালয়
  • নিজস্ব প্রতিবেদক

পদ্মা সেতুর পিলারের সঙ্গে ধাক্কা লাগা রো রো ফেরি শাহ জালাল। ২৩ জুলাই বেলা ১১ টার দিকে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে
পদ্মা সেতুর পিলারের সঙ্গে ধাক্কা লাগা রো রো ফেরি শাহ জালাল। ২৩ জুলাই বেলা ১১ টার দিকে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে ছবি: প্রথম আলো
পদ্মা সেতুর ১৭ নম্বর পিলারে ফেরির ধাক্কার ঘটনার সরেজমিন অনুসন্ধান করতে চার সদস্যের কমিটি গঠন করেছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়। আগামী ১০ দিনের মধ্যে নৌপরিবহনসচিবের কাছে সুপারিশসহ তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

২৭ জুলাই এ কমিটি গঠন করা হলেও মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম খান আজ বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমকে কমিটি গঠনের বিষয়টি জানান।

নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব (উন্নয়ন) রফিকুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন অধিদপ্তরের ইঞ্জিনিয়ার অ্যান্ড শিপ সার্ভেয়ার মো. সিরাজুল ইসলাম, বিআইডব্লিউটিসির পরিচালক (অর্থ) শাহিনুর ভূঁইয়া এবং বিআইডব্লিউটিএর পরিচালক (নৌ সংরক্ষণ ও পরিচালন) মো. শাহজাহান।

তদন্ত কমিটি ফেরি ব্যবস্থাপনা উন্নয়ন, ফেরি নিরাপত্তা (ভ্যাসেল ট্র্যাকিং সিস্টেম-ভিটিএস এবং রেডিও সিস্টেমের কার্যকারিতা পরীক্ষাসহ), ফেরি পরিচালনার ক্ষেত্রে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) প্রণয়ন, ফেরি মেরামত, ব্যবহৃত যন্ত্রাংশ ও ব্যয়ের কার্যকারিতা (অধিক পুরোনো/ব্যবহার অনুপযোগী ফেরিসমূহ স্ক্র্যাপ করা যায় কি না সে বিষয়ে মতামত প্রদানসহ), ফেরির মাস্টার ও সংশ্লিষ্ট কর্মচারীদের যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা এবং নিয়োগপ্রক্রিয়া খতিয়ে দেখবে। এ ছাড়া নিরাপদ ফেরি পরিচালনার করণীয়সহ প্রতিবেদন তৈরি করবে তদন্ত কমিটি

২৩ জুলাই সকাল সোয়া নয়টার দিকে মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাট থেকে শিমুলিয়া যাওয়ার পথে রো রো ফেরি শাহ জালাল পদ্মা সেতুর ১৭ নম্বর পিলারে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে ফেরিতে থাকা ৩৩টি যান একটি আরেকটির সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে আহত হন ৩৫ জনের বেশি যাত্রী।

সেদিনই ঘটনা তদন্তে চার সদস্যের কমিটি গঠন করে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডাব্লিউটিসি)।

এ ঘটনায় ফেরিটির ফিটনেস ছিল কি না, চালকের যথাযথ যোগ্যতা, শারীরিক সুস্থতা বা কোনো অবহেলা ছিল কি না—এসব বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য শিবচর থানায় ঘটনার দিন সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হয়েছে। পরের দিন বাংলাবাজার ঘাট এলাকা থেকে ফেরির মাস্টার অফিসার আবদুর রহমানকে আটক করে শিবচর থানার পুলিশ

Sharing is caring!