নির্বাচন স্থগিত না করলে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি ইসলামী আন্দোলনের মেয়র প্রার্থীর

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মার্চ ২১, ২০২০
নির্বাচন স্থগিত না করলে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি ইসলামী আন্দোলনের মেয়র প্রার্থীর

আওয়ার বাংলাদেশ: ৭২ ঘণ্টার মধ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন স্থগিত না করলে উচ্চ আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহ্বাজ জান্নাতুল ইসলাম।

শুক্রবার (২০ মার্চ) বিকেলে নির্বাচন স্থগিতের দাবি জানিয়ে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ে রিটার্নিং অফিসারের বরাবর একটি স্মারকলিপি দেন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির অনলাইন ও মিডিয়া সমন্বয়কারী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মেয়র প্রার্থী আলহ্বাজ জান্নাতুল ইসলাম বলেন, ‘যে কোনো মূল্যে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে নির্বাচন স্থগিত করতে হবে। না হলে নির্বাচন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে রিট করব। নির্বাচন স্থগিত হলে ভোটারদের মধ্যে কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরে আসবে।’ ইতিমধ্যে আমরা সকল ধরনের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা বন্ধ করে দিয়েছি।’

এ প্রসঙ্গে সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান জানান, নির্বাচন স্থগিতের দাবিতে বিএনপিসহ কয়েকটি দল তাদের চিঠি দিয়েছে। এ চিঠি সম্পর্কে কমিশনকে জানানো হবে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শঙ্কা থেকে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচন নির্ধারিত তারিখে অনুষ্ঠানের বিষয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী রেজাউল করিমের আপত্তি না থাকলেও বিএনপি প্রার্থী ডা. শাহাদাত নির্বাচন স্থগিতের পক্ষে।

নির্বাচন স্থগিতের বিষয়ে বিএনপি প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, নির্বাচন জনগণের জন্য। দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। তাছাড়া এ শঙ্কা থেকে মানুষ ভোট কেন্দ্রে যাওয়া থেকে বিরত থাকবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

তবে নির্বাচন স্থগিতের ব্যাপারে আওয়ামী লীগের প্রার্থী রেজাউল করিমের সরাসরি বক্তব্য পাওয়া না গেলেও এর আগে বহুবার তিনি এ প্রশ্নে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, নির্বাচন স্থগিতের কোনো প্রয়োজন নেই, দেশে এখনো সে ধরনের পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।

এদিকে চট্টগ্রামবাসীকে করোনাভাইরাসের ‘মহাবিপদ’ থেকে সুরক্ষিত রাখতে অবিলম্বে নির্বাচন স্থগিত করে পরবর্তীতে দুর্যোগময় পরিস্থিতি অনুকূলে আসলে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সিনিয়র ডেপুটি গভর্নর আমিনুল হক বাবু।

Sharing is caring!