নরসিংদীতে ২০টি বাড়িঘরে লুটপাট ও হামলার ঘটনা ঘটেছে

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২০
নরসিংদীতে ২০টি বাড়িঘরে লুটপাট ও হামলার ঘটনা ঘটেছে

তানিম ইবনে তাহের

নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি:

নরসিংদীর শিবপুরে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে অন্তত ২০টি বাড়িঘরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। আজ (১৫ফেব্রুয়ারি) শনিবার সকাল ৯টার দিকে গিলাবেড় গ্রামের সুমন, মোবারক, আব্দুল হাই, মিলন, বাবু ও বেনুর নেতৃত্বে প্রায় ২০০জন লোক যশোর উত্তরপাড়া গ্রামে ঢুকে অন্তত ২০টি বাড়িঘরে হামলা চালায়। এ সময় বাড়িঘরে ঢুকে টিভি, ফ্রিজ, আসভাবপত্র ভাংচুর করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনার পর কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এই ঘটনায় এক প্রতিবন্ধীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে হামলাকারীরা। এর আগে গতকাল শুক্রবার ইউনিয়নটির গাবতলী বাজারে পাল্টাপাল্টি হামলায় বশির আহমেদ (২২) ও জাকির হোসেন (২০) নামের ২ জন গুরুতর আহত হন। তারা দু’জন কে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । এর জের ধরেই এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, গত সোমবার স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে গিলাবেড় ও ছুটাবন্দ গ্রামের দুই পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়। সে সময় দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও মারামারির ঘটনা ঘটে। ওই সময় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক বশির আহমেদ এগিয়ে এসে দুই পক্ষের মধ্যে মীমাংসা করে দেন। এরপরও গিলাবেড় গ্রামের লোকজন এতে ক্ষুব্ধ হন। এর জের ধরে শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে গিলাবেড়ের ১৫/ ২০ জন মিলে চাপাতি ও রড দিয়ে বশিরকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। পরবর্তীতে বশিরের এলাকার লোকজন ওই পক্ষের জাকির হোসেন নামের এক ব্যবসায়ীর ওপর হামলা করেন। শিবপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। হামলার বিষয়ে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

Sharing is caring!