নরসিংদীতে গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে আসামির মৃত্যু

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত নভেম্বর ২৯, ২০১৯
নরসিংদীতে গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে আসামির মৃত্যু

তানিম ইবনে তাহের

নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি

নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশালে স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির ঘটনায় আটক আসামি ইউসুফ মিয়া (৫৪) জেলা গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে নরসিংদী জেলা হাসপাতাল থেকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। নিহত ইউসুফ মিয়া নারায়নগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলার জালকুড়ি এলাকার মৃত আলী হোসেন এর ছেলে।জানা যায়, গত ৪ নভেম্বর দিবাগত রাতে পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল বাজারের ৫ টি স্বর্ণের দোকানসহ ৬টি দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এসময় ডাকাতরা ১০৯ ভরি স্বর্নালংকার, ২/৩ শত ভরি রৌপ্য ও নগদ ১৮ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে গতকাল বৃহস্পতিবার মো. ইউসুফকে আটক করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছে। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গতকাল রাত ৯টার দিকে ডাকাতি হওয়া স্বর্ণ উদ্ধার করতে অভিযানে যাওয়ার প্রস্তুতিকালে হঠাৎ শ্বাসকষ্ট ও বুকে ব্যাথার কথা জানায় ইউসুফ। তাৎক্ষণিক নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে ঢাকা মেডিকেলে স্থানান্তরিত করে। পরে ঢাকা নেওয়ার পথে ইউসুফের মৃত্যু হয়।নরসিংদী জেলা হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) এমএন মিজানুর রহমান নরসিংদী প্রতিদিনকে বলেন, ইউসুফ নামের যে রোগীকে হাসপাতালে আনা হয়েছিল তাঁর বুকে ব্যাথা ও শ্বাসকষ্ট ছিল। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। পরে ঢাকা নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।এব্যাপারে বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশের কেউ কথা বলতে রাজি হননি।

Sharing is caring!