নওগাঁর পোরশায় ৫০০ আলেমের মাঝে ইসলামী আন্দোলনের হাদিয়া বিতরণ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মে ৬, ২০২০
নওগাঁর পোরশায় ৫০০ আলেমের মাঝে ইসলামী আন্দোলনের হাদিয়া বিতরণ

জোবায়ের হোসাইন (নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি):
করোনা ভাইরাসের ভয়াবহ পরিস্থিতির মাঝে যেন থমকে গেছে দেশের সর্বস্তরের মানুষের কর্মস্থল। বন্ধ হয়ে আছে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ঘরে বসে বসে দিন পার করছে বিভিন্ন ধারার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকেরা এবং ছাত্র ছাত্রীরা।

সরকারী বেসরকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকেরা পাচ্ছে যথেষ্ট পরিমাণ সরকারি ভাতা। কিন্তু বাংলাদেশের শিক্ষাঙ্গনের বড় একটি অংশ কওমি মাদ্রাসা। আর এসব কওমি মাদ্রাসাগুলো বন্ধ থাকার কারণে দীর্ঘদিন যাবৎ বাড়িতে বেকার অবস্থায় দিন কাটছে এসব মাদ্রাসার শিক্ষকদের।

অনেকটাই অসচ্ছল হয়ে পড়েছে তাদের পরিবার, যারা মাদ্রাসার সামান্য বেতনে চালাতো তাদের সংসার।

কিছুদিন পূর্বে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর ( সৈয়দ রেজাউল করিম, পীর সাহেব চরমোনাই) তার নেতাকর্মীদের কে অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে থাকার পাশাপাশি যেন আলেমদের পাশেও তারা দাড়ায় এ ঘোষণা দেন।

তারই ধারাবাহিকতায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নওগাঁ জেলার পোরশা উপজেলা শাখার উদ্যেগে গত ২৪/০৪/২০২০ ইংরেজি তারিখ থেকে শুরু হয় আলেমদের মাঝে হাদিয়া সরূপ ত্রান বিতরণ। পোরশা থানার ছয়টি ইউনিয়নে বিভিন্ন ধাপে এই কার্জক্রম চলে৷ আজ নিতপুর ইউনিয়নে গিয়ে শেষ হয়।

এবিষয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ পোরশা থানা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব তৈয়ব শাহ চৌধুরী কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন,
যখন চরমোনাই পীর সাহেব হুজুর দরিদ্র অসহায়সহ আলেমদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান, তখন আমরা পরামর্শ করি যে, এখন অসহায় গরিবদের পাশে না দাড়িয়ে আমরা আগে আলেমদের পাশে দাড়াবো যেহেতু আমাদের এলাকাতে আলেমদের সংখ্যা বেশি। আর আলেমরা হলো নবীর ওয়ারিশ৷ তাই তাদের পাশে থাকা আমাদের প্রত্যেকেরই কর্তব্য।

তিনি আরো বলেন, আজ দেশে চরমোনাই পীর সাহেব হুজুরের নেতৃত্বে এই করোনা দূর্যোগ সময়ে মানুষের পাশে আছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।

তিনি এই কার্যক্রমে যারা সাহায্য সহযোগিতা করেছেন তাদেরকে ধন্যবাদ জানান এবং সর্বদা পোরশা বাসীর পাশে থাকার ঘোষনা দেন।

Sharing is caring!