দলীয় গঠনতন্ত্র না মেনে নরসিংদী জেলা মহিলা আ’লীগের কমিটি গঠন

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
দলীয় গঠনতন্ত্র না মেনে নরসিংদী জেলা মহিলা আ’লীগের কমিটি গঠন

তানিম ইবনে তাহের

নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি:

দলীয় গঠনতন্ত্র না মেনে, অনুপ্রবেশকারীদের দিয়ে বাসায় বসে নরসিংদী জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের কমিটি গঠনের অভিযোগ উঠেছে। আজ বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) সকালে নরসিংদী সদর উপজেলা মোড়স্থ একটি সংস্থার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেছেন জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্যরা।সংবাদ সম্মেলনে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের তিন যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপিকা আইরিন পারভীন, রহিজা বেগম ও মালা রানী দাস স্বাক্ষরিত লিখিত বক্তব্যে অধ্যাপিকা আইরিন পারভীন বলেন, নরসিংদী জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও এমপি নজরুল ইসলামের হাতকে দুর্বল করার জন্য অপশক্তিরা মিলিত হয়ে জেলা আওয়ামী লীগ পরিবারকে ধ্বংস করার চেষ্টা করা হচ্ছে।তিনি বলেন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্যরা নিয়মানুযায়ী বারবার কেন্দ্রে তাগাদা দেয়া ও যোগাযোগ করলেও গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কোনপ্রকার সম্মেলন না করে বাসায় বসে একটি কমিটি গঠন করা হয়। তৃণমূলকে গুরুত্ব না দিয়ে করা গঠনতন্ত্র বিরোধী উক্ত কমিটিতে দলে অনুপ্রবেশকারীদের স্থান দেয়া হয়েছে। যা জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতৃবৃন্দ মেনে নেবে না। যেখানে দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্পষ্ট বক্তব্য কোকিলদের দলে চাই না, দু:সময়ের কর্মীদের চাই। ২০০৮ এর পর যারা দলে এসেছে তারা দলে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে আখ্যায়িত।অধ্যাপিকা আইরিন পারভীন অভিযোগ করে বলেন, যাদেরকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ সিনিয়র সহ-সভাপতি, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে এরা অনেকেই ১৮/০৬/২০০৮ ইং তারিখে আহবায়ক কমিটির যোগ্যতাও অর্জন করে নাই। ২০০৮ সালে কেন্দ্রিয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলন ও বিএনপি জামায়াত জোট বিরোধী আন্দোলনে রাজপথে অগ্রণী ভূমিকা পালনকারীদের দিয়ে ২৪ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি করে দিয়েছিলেন। এরপর থেকে কাধে কাধ মিলিয়ে নিরলসভাবে কাজ করায় মহিলা আওয়ামী লীগ সংগঠিত হচ্ছিল। এরপর কেন্দ্রীয় সভাপতি সাফিয়া খাতুন ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ বেগমের বাসায় গিয়ে সম্মেলনের জন্য বলা হলেও তারা কর্নপাত করেননি।গত ২৭ সেপ্টেম্বর গঠনতন্ত্র বিরোধী ১৫ সদস্য বিশিষ্ট নরসিংদী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের একটি কার্যকরী কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়। এতে নিয়ম অনুযায়ী অবৈধ ওই কমিটি ভেঙ্গে দেয়ার আবেদন জানানো হলেও তা হয়নি। উল্টো ওই গঠনতন্ত্র বিরোধী কমিটি ভেঙ্গে না দিয়ে পুণরায় ৯১ সদস্য বিশিষ্ট কার্যকরী কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়। ওই অবৈধ জেলা কমিটি একটি শহর কমিটির অনুমোদন দেয়। যাতে মাদক ব্যবসায়ীও স্থান পেয়েছে

Sharing is caring!