ডাকসু ভিপি নুরের অপরাধটা কি?

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত ডিসেম্বর ৫, ২০১৯
ডাকসু ভিপি নুরের অপরাধটা কি?
ঢাবি অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল:

ভিপি নুরুল হক নুরের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চ। বুধবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে ডাকসুর সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে সংগঠনটি। এসময় তারা ভিপি নুরুল হক নুরের কুশপুত্তলিকায় আগুন দেন। শুধু তাই নয় আন্দোলনকারীরা নুরের অফিসে তালা দিয়ে কার্যালয় ঘেরাও করে রেখেছিল। এসব বিষয় নিয়ে বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) নিজের ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল। তার স্ট্যাটাসটি বিডি২৪লাইভের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল-

‘বুঝলাম না ডাকসু ভিপি নুরের অপরাধটা কি? একথা, সেকথা জোড়া মেরে, ইচ্ছে মতো ব্যখ্যা দিয়ে তার নামে হাস্যকর অপবাদ দেয়ার চেষ্টা চলছে কেন? তার প্রতিবাদী কণ্ঠ চেপে ধরার জন্য? লক্ষ কোটি টাকা পাচার হয়ে যায় দেশ থেকে, ব্যাংক খালি করে দেয়া হয় টাকা মেরে, বালিশ, বস্তা, ইট-সুড়কি কেনা হয় আজব অংকে – সেসব নিয়ে একটা কথা না। সারাক্ষণ চেষ্টা শুধু নুরদের নামে কালিমা লেপনে। নিন্দা জানাই এ অপচেষ্টার!’

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) একটি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত সংবাদে বলা হয়, ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের একটি অডিও ক্লিপ ফাঁস হয়েছে। সেখানে নুরুকে জনৈক এক প্রকল্প কর্মকর্তার কাছে তদবির করতে শোনা গেছে। এছাড়া প্রবাসে এক বাংলাদেশির সঙ্গে টেলিফোনে টাকা লেনদেনের বিষয়ে কথা বলতে শোনা গেছে। এখানে ডাকসু ভিপি তার আত্মীয়ের একটি প্রকল্প নিয়ে এক প্রকল্প কর্মকর্তার সাথে কথা বলতে শোনা যায়। একই অডিওতে একজন প্রবাসী বাংলাদেশির কাছ থেকে টাকা চাওয়ার কথা শোনা গেছে। ফোনালাপ নিয়ে প্রচারিত সংবাদে নুরের অডিও ক্লিপটি যে তার, সেটা তিনি স্বীকার করেছেন। ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপ প্রসঙ্গে নুর বলেন, ‘আমার একটি ফোনালাপ ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় বিকৃতভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আমার পুরোপুরি কথা না শুনিয়ে কিছু অংশ কেটে প্রচার করেছে, যা সাংবাদিকদের নৈতিকতার সাথে যায় না। আমি এর বিরুদ্ধে একটি প্রতিবাদলিপি ও উকিল নোটিশ পাঠাব।’

Sharing is caring!