টাঙ্গাইলের নাগরপুরে  ইরি ধান নষ্ট হয়ে গেছে শিল ও ঘূর্ণিঝড়ে

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মে ১২, ২০২০
টাঙ্গাইলের নাগরপুরে  ইরি ধান নষ্ট হয়ে গেছে শিল ও ঘূর্ণিঝড়ে

মিজানুর রহমান (টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি):
টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর থানাধীন পানান গ্রামের কৃষকদের কষ্টের ফসলগুলো শিল ও ঘূর্ণিঝড়ে নষ্ট হয়ে গেছে।

ধান নষ্ট হওয়াও কৃষিনির্ভর পরিবারগুলো দুঃচিন্তায় আছে৷ এ ফসল দিয়ে তাদের এক বছরের জিবিকা নির্বাহ হয়৷

মো: বাচ্চু নামে এক কৃষক বলেন, আমার ৩০ ডিসিমেল জমিতে ধান পেয়েছি মাত্র এক মন। বাকি সব ঝড়ে নষ্ট হয়ে গেছে৷

আরেক কৃষক মো: বাহাদুর বলেন, আমার ৫০ ডিসিমেল জমিতে ইরি ধানের চাষ করেছিলাম৷ বাম্পার ফলন হয়েছিলো৷ কিন্তু ঝড়ে নষ্ট হয়ে পেয়েছি মাত্র ১২ মন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ধানগুলো ছিল পাকা৷ কষ্টের ফসল তোলার সময়ে এরকম বিপদে কৃষকরা খুবই মর্মাহত৷

তবে অনেক কৃষক বলেন, এসব বিপদ আসে আমাদের গুনাহর কারনে৷ মহান আল্লাহ্ তাআলা যা করেন ভালোর জন্যই করেন৷ তাই আমরা এর জন্য চিন্তিত না।

আমাদের মধ্যে অনেক অসহায় ও গরীব লোক আছে, যারা সারাবছর এই ফসলগুলোর উপর ভিত্তি করে চলে৷ সারাবছর তারা নিজেরা খায় এবং বাজারে বিক্রি করে নিত্যপণ্য জিনিস ক্রয় করে নিজেদের প্রয়োজন মেটায়। এ বছর কিভাবে চলবে তা নিয়ে তারা চিন্তিত৷

অসহায় কৃষকদের সাহায্য করতে সরকার ও বিত্তবানদের কাছে আবেদন জানান অনেকে৷

Sharing is caring!