ছাত্রলীগ উম্মাদ খুনি তৈরী করে -ইশা ছাত্র আন্দোলন ভোলা জেলা

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত অক্টোবর ৯, ২০১৯
ছাত্রলীগ উম্মাদ খুনি তৈরী করে -ইশা ছাত্র আন্দোলন ভোলা জেলা

মোঃ ইসমাইল

ভোলা জেলা প্রতিনিধি:

৯ অক্টোবর ২০১৯ইং রোজ বুধবার , বেলা ১১.৩০মি.সময় ভোলা সদর কে জাহান মার্কেট এর সামনে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন ভোলা জেলা উত্তর শাখার উদ্যোগে সন্ত্রাসী সংগঠন ছাত্রলীগ কর্তৃক বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন ভোলা জেলা উত্তর শাখার সভাপতি মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ভোলা জেলা উত্তর শাখার সহ-সভাপতি মাওলানা মিজানুর রহমান, সিনিয়র সহ-সভাপতি মাওঃ তাজউদ্দিন ফারুকী, জয়েন্ট সেক্রেটারী মাওলানা তরিকুল ইসলাম, ভোলা-২ আসনের হাত পাখা প্রতীকের সংসদ সদস্য পদ প্রার্থী মাওঃ ওবায়েদ বিন মোস্তফা সহ জেলা ও থানা নেতৃবৃন্দ। এসময় বক্তারা বলেন, দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে এ ধরণের হত্যাযজ্ঞ কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।খুনিরা ছাত্রলীগের বুয়েট শাখার দায়িত্বশীল। ছাত্রলীগকে আমরা একটি ছাত্র রাজনৈতিক সংগঠন হিসেবে জানতাম। এই ঘটনায় প্রমাণ হলো ছাত্রলীগ উম্মাদ খুনিও তৈরী করে; যারা নিজেদেরই ক্যাম্পাসের একজন শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে মেরে ফেলতে পারে।’ ‘দেশের বর্তমান পরিস্থিতি এমন এক পর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে, দেশের পক্ষে বিদেশি শক্তির বিরুদ্ধে কথা বলাটাই যেন এখানে অপরাধ। যার জ্বলন্ত সাক্ষী আবরার ফাহাদ। দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে আবরারের খুনীদের শাস্তি কার্যকর করতে হবে এতে বক্তারা আরো বলেন, ‘আমরা সরকারের প্রতি তীব্র হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলতে চাই, অনতিবিলম্বে আবরার ফাহাদের খুনিদের গ্রেফতার ও তদন্তপূর্বক সর্বোচ্চ শাস্তি কার্যকর করা না হলে দেশের ছাত্র-জনতাকে নিয়ে পীর সাহেব চরমোনাই রহ নেতৃত্বে দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তোলা হবে।’বাংলাদেশের গ্যাস,বিদ্যুৎ,পানি এগুলো নিজস্ব সম্পত্তি। এগুলোর প্রতি ভারতের কোনো অধিকার নেই। সুতরাং বাংলাদেশ এর গ্যাস বাংলাদেশ এর বাহিরে যেতে দেওয়া হবে না, বাংলাদেশের পানি ভারতে নিতে দেওয়া হবে না। প্রয়োজনে ভারতে আমরা শরীরের রক্ত পাঠাবো, তারপরও ফেনী নদীর পানি দিবো না। বক্তারা সরকার কে উদ্দেশ্য করে বলেন আপনি ভারত কে সব কিছুই দিয়েছেন ভারত থেকে কিছু ই আনতে পারেন নি।এরপর আর কি দিবেন আমরা জানতে চাই। অতি দ্রুত আবরারের হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে বিচারের দাবি জানিয়ে দোয়া মুনাজাতের মাধ্যমে মানববন্ধন শেষ করেন।

Sharing is caring!