কুয়াকাটা হুজুরের মাহফিলে বাঁধা দেয়ায় আ’লীগের ইমেজ নষ্ট হয়েছে: আ’লীগ নেতা

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯
কুয়াকাটা হুজুরের মাহফিলে বাঁধা দেয়ায় আ’লীগের ইমেজ নষ্ট হয়েছে: আ’লীগ নেতা

এমদাদুল হক
ছাগলনাইয়া (ফেনী) প্রতিনিধি:

পূর্ব নির্ধারিত ঘোষণা অনুযায়ী আজ শুক্রবার ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া উপজেলার করৈয়া বাজারে তাফসীর মাহফিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো। বয়ান করার কথা ছিল জনপ্রিয় ওয়ায়েজ হাফিজুর রহমান সিদ্দিকীর। কিন্তু উপজেলা আ’লীগের সম্মেলনের কারণে প্রশাসনিক অনুমতি না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে মাহফিল বন্ধ ঘোষণা করে মাহফিল বাস্তবায়ন কমিটি। সকলের কাছে খবর না পৌছায় দূর দুরান্ত থেকে মাহফিল শুনতে এসে আশাহত হয়ে ফিরে যাচ্ছেন মুসল্লীরা। কমিটির সদস্য মোহাম্মদ জুনায়েদ জানান, আজ বিকালে ২ টি হায়েস মাইক্রোবাস, ১ টি বড় বাস এবং বেশকিছু সিএনজি এসে মাহফিল বন্ধের খবর শুনে আবার ফিরে যায়।
এদিকে সোস্যাল মিডিয়ায় তীব্র নিন্দা জানাচ্ছেন বিভিন্ন শ্রেণিপেশার নাগরিকগণ। এমনকি বাদ যাননি খোদ আ’লীগেরই নেতা-কর্মী এবং সমর্থকেরা। বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের কেন্দ্রীয় একজন নেতা লিখেছেন, আ’লীগের ইমেজ নষ্ট করে সম্মেলনের স্থান হতে ৫ কিলোমিটার দূরে মাহফিল বন্ধ কেন। অপর ফেসবুক ব্যবহারকারী মুহাম্মাদ নুরুল্যাহ লিখেছেন, রাজনৈতিক দলের সম্মেলনের কারণে রাষ্ট্রধর্মের প্রোগ্রাম বন্ধের নিন্দা জানাই।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন নাগরিক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সম্মেলন এখান থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে এখানে কোনো পক্ষের সমস্যা হওয়ার কথা নয়। তাছাড়া যেহেতু সম্মেলন সন্ধ্যার আগেই শেষ হয়ে গিয়েছে সেহেতু অনুমতি দেওয়া যেতো।
এদিকে মাহফিল কমিটি সূত্রে জানা যায়, মাহফিল বছরখানেক আগে নির্ধারিত এবং ৩-৪ মাস আগে থেকে প্রচার করা হচ্ছে। অন্যদিকে আ’লীগের সম্মেলন ১ মাস আগে ঘোষণা দিয়েছিলো ১৫ সেপ্টেম্বরে কিন্তু কাউকে না জানিয়ে হঠাৎই তারিখ পরিবর্তন করে ২০ সেপ্টেম্বরে পিছিয়ে দেয়। তবে আশ্চর্য্যের ব্যাপার প্রশাসন সম্মেলনের দোহাই দিয়ে মাহফিলের অনুমতি না দেয়া।

Sharing is caring!