কী অপরাধ যাত্রী সাধারণের? তারা কেন জিম্মি মালিক-শ্রমিকদের কাছে?

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
কী অপরাধ যাত্রী সাধারণের?  তারা কেন জিম্মি মালিক-শ্রমিকদের কাছে?

দাউদকান্দি উপজেলা প্রতিনিধি:

ঢাকা -চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে কুমিল্লা সদর পর্যন্ত পথে পথে মাইক্রো বাস ও পাপিয়া বাস সার্ভিসের মালিক-শ্রমিকদের কাছে জিম্মি হয়ে আছে যাত্রী সাধারণ।
যাত্রী সাধারণের প্রশ্ন এসব দেখার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও জনপ্রতিনিধিদের কি কোনো দায়িত্ব নেই?
দাউদকান্দি থেকে দূরের যাত্রী ছাড়া কাছাকাছি কোনো যাত্রী নিচ্ছে না পাপিয়া বাস, এক সময় দূরের ও নিকটের সকল যাত্রীই ছিল ওদের পছন্দ। আবার কুমিল্লা থেকে দাউদকান্দির পথে দূর নিকট বাছাই নাই। এসব হয়রানির বিষয়ে জানতে চাইলে পাপিয়ার শ্রমিক- চালকের বক্তব্য হচ্ছে, কাছের যাত্রী নিলে মাইক্রোবাসের মালিক-শ্রমিকদের কাছে তারা নাজেহাল হতে হয়। দাউদকান্দি যাওয়ার পথে যাত্রী নেওয়ার বিষয়ে কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি।
এদিকে মাইক্রোবাস মালিক-চালকরা মোটা অংকের চাঁদা দিয়ে সড়কে তাদের গাড়ী চালানোয় নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে রীতি মতো যাত্রীদের পকেট কাটছে বলা যায়।
এক কিলোমিটার পথের ভাড়া আদায় করছে ১০ টাকা, সাত জনের সিটে যাত্রী নিচ্ছে দশজন।
প্রতিবাদের কোনো সুযোগ নেই।
জানা গেছে চাঁদার টাকা রাজনৈতিক সংগঠনের শ্রমিক নেতাদের নামে বহুদূর পর্যন্ত পৌছে। সে কারনেই নিয়ম নীতির তোয়াক্কা নেই।
তাহলে কি এই অনিয়মই নিয়ম হবে? এটাই প্রশাসনসহ সকলের কাছে যাত্রীদের জিজ্ঞাসা?

Sharing is caring!