গলাকাটা কিশোরীকে উদ্ধার

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জুন ৩০, ২০২০
গলাকাটা কিশোরীকে উদ্ধার
  • তানিম ইবনে তাহের
  • বিশেষ প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জের লতিবাবাদ ইউনিয়নে জবাই করা অবস্থায় অজ্ঞাতপরিচয়ের এক নারীকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী। তবে হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

অাজ মঙ্গলবার (৩০ জুন) সকালে কিশোরগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার লতিবাবাদ ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামে একটি বাঁশঝাড় থেকে ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা বলেন, উত্তর লতিবাবাদ লক্ষ্মীপুর গ্রামের জনৈক মালেক ভুঁইয়ার বাড়ির পেছনে একটি বাঁশঝাড়ের নিচে গলা কাটা অবস্থায় মাটিতে বসে থাকা এক নারীকে দেখতে পায়। এ সময় ওই নারী হাত ইশারায় বাঁচার জন্য আকুতি করছিল। তিনি কথা বলতে পারছিলেন না। তাকে একটি খাতা ও কলম এনে দিলে সেখানে কিছু একটা লেখার চেষ্টা করেন ওই নারী।আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুবকর সিদ্দিক বলেন, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়। তাকে গলা কাটার পর মৃত ভেবে জঙ্গলে ফেলে যায় বলে ধারণা।
তিনি আরও বলেন, মেয়েটিকে বাঁচানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হয়েছে। তাকে ময়মনসিংহে রেফার্ড করা হয়েছিল। কিন্তু এর আগেই তিনি মারা যান।
এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Sharing is caring!