করোনা টেস্ট ফি বাতিলের দাবীতে চট্টগ্রামে ইশা ছাত্র আন্দোলনের মানববন্ধন

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত জুলাই ৪, ২০২০
করোনা টেস্ট ফি বাতিলের দাবীতে চট্টগ্রামে ইশা ছাত্র আন্দোলনের মানববন্ধন
  • আলমগীর ইসলামাবাদী
  • চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি

করোনা টেস্ট ফি বাতিলের দাবিতে, স্বাস্থ্যখাতে লুটপাট ও চরম অব্যবস্থাপনা এবং সীমন্তে নির্বিচারে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের মানববন্ধন

বাংলাদেশ ইতোমধ্যে বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় প্রথম বিশ দেশের তালিকায় প্রবেশ করেছে। করোনা মহামারীর ১০০ দিন পেরিয়ে গেলেও সনাক্তকরণ পরীক্ষা একেবারেই অপ্রতুল। এহেন পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ মহাতঙ্কে দিনাতিপাত করছে। কিন্তু সরকার ইতোমধ্যে করোনা টেস্ট ফি নির্ধারণ করেছে ২০০ থেকে ৫০০ টাকা। আমরা এমন সংবিধান ও জনবিরোধী সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এর মাধ্যমে দেশে করোনা পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ আকার ধারণ করবে।

আজ ৪ জুলাই, ২০২০ রোজ শনিবার সকাল ১১ টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্ত্বরে আয়োজিত ‘করোনা টেস্ট ফি বাতিল, স্বাস্থ্যখাতে লুটপাট ও চরম অব্যবস্থাপনা এবং সীমন্তে নির্বিচারে মানুষ হত্যা’র প্রতিবাদে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন চট্টগ্রাম মহানগর কর্তৃক আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কেন্দ্রীয় কওমী মাদ্রাসা বিষয়ক সম্পাদক নুরুল বশর আজিজি উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন চট্টগ্রাম মহানগরের প্রশিক্ষণ সম্পাদক আব্দুর রহমান রবিনের সঞ্চালনায় উক্ত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন শাখার সভাপতি রিদওয়ানুল হক শামসী।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে নুরুল বশর আজিজি আরও বলেন, “যেখানে মানুষ ধীরে ধীরে দারিদ্র্য থেকে দারিদ্র্য সীমার নিচে অবগাহন করছে । তারপর এমন আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত দেশের সাধারণ খেটে খাওয়া, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর চিকিৎসা অধিকার হরণ করার নামান্তর। এই সিদ্ধান্তে দেশে আরো গভীর থেকে গভীরতর সংকটের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে । এর দায় সম্পূর্ণভাবে সরকারকে নিতে হবে। তাই অনতিবিলম্বে এই সংবিধান ও জনবিরোধী সিদ্ধান্ত বাতিল করে বিনা মূল্যে করোনা টেস্ট উন্মুক্ত করার দাবি জানাচ্ছি।

এছাড়াও এহেন সংকটাপন্ন অবস্থায় সাধারণ মানুষ যখন বিনা চিকিৎসায় প্রতিদিন মৃত্যুর মিছিলে যোগ দিচ্ছে তখনও স্বাস্থ্যখাতে আয়েশী ঢংয়ে চলছে সীমাহীন লুটপাট । ঢাকা মেডিকেলের চিকিৎসকদের এক মাসের খাবার বিল ২০ কোটি টাকার রিপোর্ট ই বলে দেয় লুটেরাদের লুটপাট থেমে নেই। আমরা দাবি করছি নাগরিকের চিকিৎসা সেবা বিনা শর্তে রাষ্ট্রকেই বহন করতে হবে।”

সভাপতির বক্তব্যে রিদওয়ানুল হক শামসী বলেন, ভারতীয় প্রতিরক্ষা বাহিনী বিএসএফ সীমান্তে প্রতিনিয়ত বাংলাদেশীদের পাখির মত গুলি করে হত্যা করছে। যা কোনভাবেই একটি প্রতিবেশী বন্ধুরাষ্ট্রের আচরণ হতে পারেনা। কোভিড় ১৯ এর প্রভাবে সারা পৃথিবী যেখানে স্থবির সেখানে বিএসএফ সীমান্তে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরতা চালিয়ে আমাদের বাংলাদেশীদের হত্যা করছে। এজন্য বাংলাদেশ সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতিই দায়ী।”

তিনি বলেন, অবিলম্বে সীমান্তে সংঘটিত সকল হত্যার সুষ্ঠু বিচার কার্যকর করে ভারতের বন্ধুরাষ্ট্রের পরিচয় দিতে হবে। অন্যথায় বাংলাদেশ সরকারকে আহবান জানাবো, সীমান্তে এই নিষ্ঠুরতা বন্ধে ও হত্যার বিচার বাস্তবায়নে আন্তর্জাতিক আদালতের স্মরণাপন্ন হতে।

উক্ত মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন চট্টগ্রাম মহানগরের সহসভাপতি মুহাম্মদ তানভীর হোসাইন, দফতর সম্পাদক মুহাম্মদ মনির হোসাইন, আলিয়া মাদ্রাসা বিষয়ক সম্পাদক মামুন রশিদ, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক মুহাম্মাদ এমদাদ প্রমুখ।

এতে আরও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন চট্টগ্রাম মহানগর আওতাধীন থানা, ওয়ার্ড এবং ইউনিটসমূহের দায়িত্বশীল ও সদস্যবৃন্দ।

Sharing is caring!