আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে সরকারি জলাশয়ের মাটি বিক্রির অভিযোগ

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত মে ১৯, ২০২০
আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে সরকারি জলাশয়ের মাটি বিক্রির অভিযোগ
  • জিহাদুল ইসলাম আনসারী
  • বিশেষ প্রতিনিধি ঢাকা জেলা

ঢাকার ধামরাইয়ে সরকারি জলাশয়ের মাটি কেটে ইটভাটায় বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে। একই ইটভাটায় প্রতিদিনই শত শত ট্রাক মাটি বিক্রি করছে বলে জানা গেছে । এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মদিনা ব্রিকসের মালিক মুনসুর আহম্মেদকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ধামরাই উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) অন্তরা হালদার।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের সীতি এলাকায় বেতলাই বিলের (জলাশয়) সরকারি জমি থেকে মাটি বিক্রি করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকু। ওই মাটি কিনে নেয় মদিনা ব্রিকস ও মের্সাস মাহী ব্রিকস নামক দুটি ইটভাটার মালিক।

প্রতিদিন ভেকু দিয়ে খনন করে শত শত ট্রাক মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে ইটভাটার মালিকপক্ষ। এতে একদিকে সরকারি বিল নষ্ট হয়ে যাচ্ছে, অন্য দিকে সরকার মোটা অংকের রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে মাটি বিক্রির বিষয়ে উপজেলা প্রশাসনকে বার বার বলার পর অবশেষে সোমবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত ঘটনাস্থলে গিয়ে সরকারি মাটি কেটে নেয়ার সত্যতা পেয়ে মদিনা ব্রিকসের মালিককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকু মাটি বিক্রি করার কথা স্বীকার করে বলেন, বেতলাই বিল লিজ নেয়া হয়েছে। তবে কে লিজ নিয়েছে তা তিনি বলতে পারেননি।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাদ্দেছ হোসেনের শ্বশুর জোর করেই মাটি কেটে নিয়েছে। এখনো তার কাছে সাড়ে তিন লাখ টাকা পাওনা রয়েছে ।

এ বিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অন্তরা হালদার জানান, এলাকাবাসী ও ভূমি মন্ত্রণালয়ে অভিযোগের ভিক্তিতে জানতে পারি উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের সীতি এলাকায় বেতলাই বিলের (জলাশয়) সরকারি জমির মাটি কেটে নিচ্ছে মদিনা ব্রিকস নামক একটি ইটভাটার মালিক মুনসুর আহম্মেদ। পরে সেখানে গিয়ে অভিযান পরিচালনা করে এর সত্যতা পাওয়ায় ওই ইটভাটার মালিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তবে ঘটনাস্থলে কোনো আওয়ামী লীগ নেতাকে পাওয়া যায়নি।

Sharing is caring!