আমার লাশের ওপর দিয়ে এনআরসি করতে হবে; মমতা

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১৬, ২০১৯
আমার লাশের ওপর দিয়ে এনআরসি করতে হবে; মমতা

ডেস্ক রিপোর্ট:

ভারতের নতুন নাগরিকত্ব আইন এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) বিরোধিতায় পথে নামলেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তার নেতৃত্বে তৃণমূলের মিছিল সোমবার দুপুর ১টায় ময়দানের কাছে রেড রোডের অম্বেডকর মূর্তির পাদদেশ থেকে রওনা হয়। মিছিলটি যায় জোড়াসাঁকো। সেখানে দুপুর ২টার দিকে মিছিল পৌঁছায়।

জোড়াসাঁকোর মঞ্চে মমতা বলেন, ‘জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িকে সাক্ষী রেখে কয়েকটা কথা বলতে এসেছি। এক সময় যখন বঙ্গভঙ্গ হয়েছিল, হিন্দু মুসলিমের হাতে রাখি পরিয়ে ‘বাংলার মাটি-বাংলার জল’ গান গেয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ। হঠাৎ আজ কী হলো? বিজেপি ক্ষমতায় এসে নিজেদের আকাশের চেয়েও বড় ভাবছে। হিন্দুস্তান হমারা হ্যায়। অগর সব কা সাথ নেহি রহেগা, তো সব কা বিকাশ ক্যায়সে হোগা?’

তিনি বলেন, আপনারা ভোট দেন না? ভোটার তালিকায় আপনার নাম নেই? আপনার ছেলে-মেয়ে স্কুলে পড়ে না? আমরা সবাই নাগরিক। আপনি আবার কিসের নাগরিকত্ব দিবেন?

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা সংঘর্ষ সমর্থন করি না। আমার কাছে প্রমাণ আছে, আপনাদের-আমাদেরই কেউ কেউ বিজেপির টাকা খেয়ে এদিক ওদিক আগুন জ্বালাচ্ছে। কেউ দয়া করে ট্রেনে আগুন জ্বালাবেন না। অধিকাংশ ট্রেন ভারত সরকার বন্ধ করে দিয়েছে। তাতে সাধারণ মানুষের সমস্যা হচ্ছে। বার বার বলছি, ট্রেনে আগুন দিবেন না। পোস্ট অফিসে আগুন দিবেন না। রাস্তায় আগুন দিবেন না। যারা আপনার পক্ষে রয়েছেন, তাদের সমস্যা ফেলছেন কেন?’

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সিএবি প্রত্যাহার করতে হবে। যতক্ষণ না সিএবি প্রত্যাহার করা হবে, ততক্ষণ আমরা রাস্তায় থাকব। এখানে আর একজন বিজেপি নেতা এসেছেন, বলেছেন, ‘সাবধান করে দিচ্ছি। কেন আগুন জ্বলছে?’ আমি বলছি, আগে আসামকে গিয়ে বলো। সেখানে তোমার সরকার রয়েছে। আমি বাংলায় আছি। আমার মৃতদেহের উপর দিয়ে এনআরসি করতে হবে। সিএবি করতে হবে।

Sharing is caring!