আগামী ১৩ জানুয়ারিতে চট্টগ্রাম-৮ উপনির্বাচন

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত ডিসেম্বর ২, ২০১৯
আগামী ১৩ জানুয়ারিতে চট্টগ্রাম-৮ উপনির্বাচন
 নিজস্ব প্রতিনিধি:
জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) একাংশের সাবেক সভাপতি ও প্রয়াত সংসদ সদস্য মঈন উদ্দীন খান বাদলের শূন্য আসনে (চট্টগ্রাম-৮ বায়ালখালী-চাদগাঁও) উপ-নির্বাচন আগামী ১৩ জানুয়ারি (সোমবার) অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। আগ্রহী প্রার্থীরা ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। ১৫ ডিসেম্বর যাচাই-বাছাই শেষে ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের সুযোগ থাকবে। প্রসঙ্গত, সাংসদ মঈন উদ্দীন খান বাদল ভারতের ব্যাঙ্গালুরুতে নারায়ণ হৃদ্‌রোগ ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুকালে এ মুক্তিযোদ্ধার বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। তার বাড়ি চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার সারোয়াতলী গ্রামে। সংসদ সচিবালয় আসটি শূন্য ঘোষণার পর থেকেই বিভিন্ন দলের প্রার্থীরা ভোটের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন। এরইমধ্যে গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে প্রার্থী হবেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের (বিএনএফ) প্রধান আবুল কালাম আজাদ। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরাও দৌড়ঝাঁপ শুরু করে দিয়েছেন। ইসির বাজেট শাখা জানিয়েছে, উপ-নির্বাচনের জন্য থোক বরাদ্দ আগে থেকেই আছে। এটা নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। ইভিএম ভোট হলে ব্যয় এক রকম হবে। আর ইভিএমে না হলে ব্যয় কম হবে। ইসি সচিব জানান, বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া পৌরসভা ও চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনও একই সময়সূচি অনুযায়ী হবে। ওই দুই নির্বাচনেও ভোট হবে ইভিএমে।

Sharing is caring!